kalerkantho

বুধবার । ৮ বৈশাখ ১৪২৮। ২১ এপ্রিল ২০২১। ৮ রমজান ১৪৪২

নিজেদের স্টল দিয়ে মেলা উদযাপন করল শিশুরা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ মার্চ, ২০২১ ১৮:৩৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



নিজেদের স্টল দিয়ে মেলা উদযাপন করল শিশুরা

মেলার স্টল ঘুরে দেখছে আগত দর্শনার্থীরা

ফাহমিদা, বৃষ্টি, ইসমি, নিহা, হিমেল, মারুফ, রোহান ওরা সবাই এক পাড়াতেই থাকে। নিয়মিত টেলিভিশনে বিভিন্ন মেলার ছবি দেখে। মেলার স্টল দেখে কিন্তু কখনও কোনো মেলায় যাবার সুযোগ হয়নি। তাই তাদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হলো মেলা।

বুধবার ৩ মার্চ সকাল নয়টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত শিশুরা এই মেলায় অংশ নেয়।

এ সময় শিশুদের মা,বাবা, দাদা, চাচা, চাচি, দাদিসহ পরিবারের সদস্যরা মেলায় ঘুরতে আসে। তারা শিশুদের বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন। কোন কোন মা বাবা নিজেদের সন্তানদের খুশি করতে তাদের কাছ থেকে পণ্য কেনেন।

শিশুদের জন্য এমন মেলার আয়োজন করা হয় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার সদর থানার স্বরূপনগর এ। শিশুদের জন্য এমন মেলার আয়োজন কেন? এ প্রশ্নের জবাবে আয়োজক শুক্রবারের আড্ডার কনভেনর তাসকিনা ইয়াসমিন এমি বলেন, আমি জেলায় এক বছর এবং ঢাকায় গত ১৫ বছর সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত। এ কারণে প্রতিবেদন তৈরি করতে, কখনও বেড়াতে বহু মেলায় গেছি। কিন্তু শিশুদের সঙ্গে গল্পের সময় যখন জানলাম তারা কখনও মেলায় যায়নি। তখনই আইডিয়াটা মাথায় আসে। তাদের সাথে আলাপ করেই সিদ্ধান্ত নেই আমরা মেলা করব। ওদের যখন বলি নিজেরা মেলা করলে কেমন হয়? ওরা খুব খুশি হয় এবং সবাই একসঙ্গে রাজি হয়ে যায়। যেই ভাবা সেই কাজ, মাত্র ২ দিনের সিদ্ধান্তে আমরা এই মেলার আয়োজন করেছি।

মেলায় বিক্রয়ের জন্য রাখা পণ্যের মধ্যে ছিল আচার, মিষ্টি, চুড়ি, ফল, শাড়ি, থ্রিপিস ও ওয়ানপিস। মেলায় দর্শনার্থীদের আগমনে শিশুরা অনেক খুশি হয়।

শিশু ফাহমিদা জানায়, মেলায় কখনও যাই নি কিন্তু নিজে আজ মেলা করছি এটা খুবই ভাল লাগছে।

ইসমি জানায়, তার রঙিন চুড়ি অনেকেই পছন্দ করেছে। মারুফের কামরাঙার এবং চালতার আচার অনেকে কিনেছে।

মেলা শেষে শিশুরা তাদের জন্য বানানো বিরিয়ানি খেয়ে দিনের আয়োজন শেষ করে। শিশুদের এই আনন্দ আয়োজনে মেলার স্থান দেন এবং বিরিয়ানি রান্না করে খাবার ব্যবস্থা করেন বি. এস. প্রি ক্যাডেট স্কুলের অধ্যক্ষ ফজলুর রহমান ফিটু ও শিক্ষক জান্নাতুল রহমান মেলি।

মেলায় অংশগ্রহণকারী শিশু ফাহমিদা, ইসমি, নিহা, রোশনি, বৃষ্টি, হিমেল, আসাদুল, আরাফ, হাসিন,  মারুফ, ফুয়াদ, সিয়াম, রোহান আবারও মেলা আয়োজনের আশা প্রকাশ করেছে। এ সময় নৃত্য পরিবেশন করেছে ফাহমিদা ও আসমা। শিশুরা আনন্দ আয়োজনের মধ্য দিয়ে মেলা শেষ করেছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা