kalerkantho

বুধবার। ৬ মাঘ ১৪২৭। ২০ জানুয়ারি ২০২১। ৬ জমাদিউস সানি ১৪৪২

নিউইয়র্কে গোল্ডেন এজ হোম কেয়ারের নতুন অফিসের যাত্রা

বিশেষ প্রতিনিধি, নিউইয়র্ক    

২০ নভেম্বর, ২০২০ ০৯:৪৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিউইয়র্কে গোল্ডেন এজ হোম কেয়ারের নতুন অফিসের যাত্রা

ছবি: ফিতা কেটে গোল্ডেন এজ হোম কেয়ারের নতুন অফিসের উদ্বোধন করছেন ব্রুকলিন বরো প্রেসিডেন্ট এরিক অ্যাডামস।

নিউইয়র্কসহ গোটা যুক্তরাষ্ট্রে ব্যবসায় বাণিজ্যে সাফল্য লাভ করছে প্রবাসী বাংলাদেশিরা। তাদেরই একজন শাহ নেওয়াজ। জ্যাকসন হাইটস বিজনেস এসোসিয়েশনের সভাপতি শাহ নেওয়াজ প্রবাসে বাংলা সংস্কৃতির বিকাশে অগ্রণী একজনও। তার মালিকানাধীন গোল্ডেন এজ হোম কেয়ারের নতুন অফিসের উদ্বোধন উপলক্ষ্যে জড়ো হয়েছিলেন নিউইয়র্কের মূলধারার রাজনীতিবিদ ও জনপ্রতিনিধিদের অনেকে। ছিলেন কমিউনিটির বিশিষ্টজনেরা।

নতুন প্রত্যাশায় যাত্রা শুরু করেছিল বাংলাদেশি মালিকানাধীন গোল্ডেন এজ হোম কেয়ার। এবার জ্যাকসন হাইটসে চালু হলো প্রতিষ্ঠানটির নতুন কার্যালয়। নিউইর্কের বাংলাদেশীসহ বিভিন্ন কম্যুনিটির মানুষকে অত্যন্ত বিশ্বস্থতা ও সুনামের সাথে হোম কেয়ার সেবা দিয়ে আসছে প্রতিষ্ঠানটি। স্থানীয় সময় বুধবার সন্ধ্যায় এ উপলক্ষ্যে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানকে ঘিরে নেয়া হয় ব্যপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা। বিশেষ করে সামাজিক নিরাপত্তা মেনেই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ফিতা কেটে উদ্বোধন করেন ব্রুকলিন বরো প্রেসিডেন্ট এরিক অ্যাডামস, নিউইয়র্ক ষ্টেট সিনেটের জন ল্যু, ষ্টেট এসেম্বলি মেম্বার ডেভিড ওয়েপ্রিন। এসময় চেয়ারম্যান শাহ নেওয়াজ এবং পরিচালক রানো নেওয়াজও উপস্থিত ছিলেন।

হোম কেয়ার কম্পানি গোল্ডেন এজ এরই মধ্যে নিউইয়র্কে ব্যপক সাড়া ফেলেছে বলে জানান উদ্যোক্তারা। তারা বলেন, গোল্ডেন এজ অন্য কোন প্রতিষ্ঠানের শাখা নয়। এটি নিউইয়র্ক স্টেট হেলথ ডিপার্টমেন্টের লাইসেন্সধারী একটি পূর্নাঙ্গ প্রতিষ্ঠান। গোল্ডেন এজ হোম হেলথ কেয়ার এজেন্সির আওতায় সিডিপ্যাপ সহ রয়েছে এইচ এইচ এ, পিসিএ এবং নার্সিং সার্ভিস প্রদানের ব্যবস্থা। জ্যাকসন হাইটসে প্রধান অফিস ছাড়াও এর শাখা রয়েছে ব্রুকলীন, ব্রঙ্কস ও জ্যামাইকায়।

অনুষ্ঠানে শাহ নেওয়াজ বলেন, "ব্যবসায় প্রসারের সাথে সাথে গ্রাহক সেবার মান বৃদ্ধির জন্য সুপরিসর জায়গার কোন বিকল্প নেই। হোম কেয়ার একটি সেবামূলক ব্যবসা। এখানে গ্রাহক সেবাকেই আমরা সর্বোচ্চ প্রাধান্য দিয়ে থাকি"।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা