kalerkantho

সোমবার । ১০ কার্তিক ১৪২৭। ২৬ অক্টোবর ২০২০। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জ্যান্ত সাপকেই ‘মাস্ক’ হিসেবে ব্যবহার!

অনলাইন ডেস্ক   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৮:২৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জ্যান্ত সাপকেই ‘মাস্ক’ হিসেবে ব্যবহার!

করোনার কারণে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে প্রকাশ্যে মাস্কের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। গণপরিবহন হোক বা অন্য কোনো ক্ষেত্রে বাড়ির বাইরে জনসাধারণের জন্য মাক্স, হ্যান্ড গ্লাভস এবং ফেস সিল্ড পরা বাধ্যতামূলক ব্রিটেনের ম্যানচেস্টার রাজ্যে। আর ‘মাস্ক পরার’ এই যুগে মাস্ক নিয়েই একটি মজার ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে। তবে ম্যানচেস্টারের সেই ঘটনাটি কিছুটা আতঙ্কেরও। 

সোমবার রাজ্যটির একটি গণপরিবহনে করে ম্যানচেস্টার থেকে স্যালফোর্ডে যাওয়ার সময় এক ব্যক্তির মাস্ক নিয়েই অদ্ভুত এক ঘটনার সাক্ষী হয়ে রইলেন বাস যাত্রীরা। বাসের নির্দিষ্ট আসনে এক ব্যক্তি বসে থাকলেও তাঁর দিকেই ঘুরেফিরে সকলের দৃষ্টি চলে যাচ্ছিল। আর যার কারণটা ছিল খুবই অদ্ভুত। কেননা ওই ব্যক্তির মুখে মাস্কের পরিবর্তে ছিল বড় একটি সাপ। আর ওই সাপটি দিয়েই তাঁর গোটা নাক মুখ ঢাকা ছিল বলে জানা গেছে বিবিসির এক প্রতিবেদনে। গলায় ও মুখে জড়িয়ে ছিল সাপটি। এখানেই শেষ নয়, সাপটি আবার ওই ব্যক্তির হাতের উপরও উঠে আসছিল। যদিও সেটি বাসে থাকা অন্যান্য যাত্রীদের কোনো ক্ষতি করেনি।

বাসের এক যাত্রী জানিয়েছেন, তিনি মনে করেছিলেন, ওই যাত্রী এক ধরনের মজার মাস্ক পরে এসেছিলেন। কিন্তু যখন দেখলেন মাস্কটি ধীরগতিতে এদিক-ওদিক যাচ্ছে তখন তিনি বুঝতে পারেন বিষয়টি।

ম্যানচেস্টারের পরিবহন সমন্বয়কারী সংস্থা আ ট্রান্সপোর্ট ফর গ্রেটার ম্যানচেস্টারের মুখপাত্র জানান, সরকার সার্জিক্যাল মাস্ক, স্কার্ফ দিয়ে মুখ ঢেকে রাখার জন্য সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা দিয়েছে। ওই মুখপাত্র বলেন, সাপকে মাস্ক হিসেবে ব্যবহার করাকে আমরা সমর্থন করি না।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা