kalerkantho

রবিবার । ৯ কার্তিক ১৪২৭। ২৫ অক্টোবর ২০২০। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

কমোডে বসে ভিডিও দেখছিল কিশোর, বিশেষাঙ্গ কামড়ে দিল অজগর!

অনলাইন ডেস্ক   

১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৯:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কমোডে বসে ভিডিও দেখছিল কিশোর, বিশেষাঙ্গ কামড়ে দিল অজগর!

বাথরুমের কমোডে বসে মনের সুখে মোবাইলে ভিডিও দেখছিল বছর ১৮ বছরের কিশোর। হঠাৎই গোপনাঙ্গে তীব্র যন্ত্রণা অনুভূত হয় তাঁর। আচমকা এতটা যন্ত্রণা হাওয়ায়, ছিটকে পড়ে যায় হাতের মোবাইল। এরপরের ঘটনা পড়লে আপনার শিরদাঁড়া দিয়ে রক্তের ঠান্ডা স্রোত বয়ে যাবে। 

মঙ্গলবার ঘটনাটি ঘটেছে মধ্য থাইল্যান্ডের নরথাবুরিতে। এ দিন সন্ধ্যায় শিরাফোপ মাসুকারাত নামে ওই কিশোর বাথরুমে যায় প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে। কোন দিকে না তাকিয়েই কমোডে বসে পড়ে সে। এরপর মোবাইলে ভিডিও দেখতে শুরু করে। মিনিট খানেকের মধ্যেই ঘটে যায় ভয়ঙ্কর ঘটনা।

কিশোর যন্ত্রণায় চিৎকার করে যখন কমোড থেকে উঠে পড়ে, তখন দেখতে পায় তাঁর বিশেষাঙ্গ কামড়ে ধরে ঝুলছে একটি অজগর সাপ! আর তা থেকে রক্ত ঝরছে। কিশোর ভয় পেয়ে গেলেও বুদ্ধির সঙ্গে সে সাপের লেজ পা দিয়ে চেপে ধরে। তারপর মুঠো করে সাপটিকে ছাড়িয়ে দেয়। ততক্ষণে বাথরুম ভেসে যাচ্ছে রক্ত।

এ দিকে ছেলের চিৎকার শুনে মা-ও আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। সাপের কবল থেকে মুক্ত হতেই ছেলেকে নিয়ে তিনি ছোটেন স্থানীয় হাসপাতালে। সেখানেই তাঁর বিশেষাঙ্গে ৩টি সেলাই পড়ে। এরপরে ওয়াশ করে দেওয়া হয় সাপে কামড়ানো অংশ, যাতে সেখান থেকে কোনোভাবে বিষক্রিয়া না ঘটে।

এ দিকে, সাপটি কিন্তু বাথরুমেই ছিল কোনো ভয় না পেয়ে। ফের সে টয়লেটের কমোডের মধ্যে ঢুকে পড়ে। এরপর সাপ উদ্ধারকারীদের ফোন করে খবর দেওয়া হলে, তারা এসে সাপটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। উদ্ধারকারীরা জানিয়েছেন, চার ফুট লম্বা সাপটি আসলে বাচ্চা। তাকে উদ্ধার করে ফের জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

সূত্র : নিউজ ১৮।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা