kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৯ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৬ সফর ১৪৪২

স্বর্ণজয়ী অ্যাথলেট এখন অর্থাভাবে নির্মাণ শ্রমিক

অনলাইন ডেস্ক   

৪ আগস্ট, ২০২০ ১০:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বর্ণজয়ী অ্যাথলেট এখন অর্থাভাবে নির্মাণ শ্রমিক

লন বল খেলায় দু’‌বার ন্যাশনাল গেমসে স্বর্ণ জিতেছেন তিনি। আন্তর্জাতিক স্তরেও একাধিকবার ভারতের নাম উজ্জ্বল করেছেন। সেই খেলোয়াড় বর্তমানে চরম আর্থিক সঙ্কটে রয়েছেন। সংসারে তার নুন আনতে পান্তা ফুরোয় অবস্থা। 

সংসার চালাতে কখনো চায়ের দোকান চালান, আবার কখনো দিনমজুর হিসেবে কাজ করাটা ভারতের ঝাড়খণ্ডের সরিতা তিরকের স্বাভাবিক ঘটনা।

জানা গেছে, দরিদ্র পরিবার থেকে উঠে আসা সরিতা ২০০৭ সাল থেকে ভারতের জাতীয় গেমসে অংশগ্রহণ করছেন। 

২০০৭ সালে তিনি ঝাড়খণ্ডের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন। পরে ২০১১ সালে বিহারের হয়ে খেলে স্বর্ণ জেতেন সরিতা। ২০১৫ সালে আবারো ঝাড়খণ্ডের হয়ে খেলেন তিনি। সেবার  জাতীয় গেমসে চ্যাম্পিয়ন হন সরিতা। 

এছাড়া ২০১৫ এবং ২০১৭ সালে ন্যাশনাল লন বল চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জেতেন তিনি। ২০১৮ সালে জিতেছিলেন রৌপ্য। এছাড়া ২০১৯ অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত এশিয়া–প্যাসিফিক চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জ জিতে ভারতবাসীকে গর্বিত করেন সরিতা। তার পরেও নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে কাজ করতে হচ্ছে তাকে।

সরিতা জানান, এর আগে একাধিকবার রাজ্য সরকারের কাছ থেকে সাহায্যের প্রতিশ্রুতি মিললেও, তা পাননি। ঝাড়খণ্ড সরকারের কাছে সব মিলিয়ে তিন লাখ ৭১ হাজার টাকা পাওয়ার কথা সরিতার। 

কিন্তু সেই আর্থিক সাহায্য এখনো মেলেনি। এ অবস্থায় অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত টুর্নামেন্টেও নামতে পারতেন না তিনি। তবে অন্য খেলোয়াড়রা সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার কারণে সেটা সম্ভভ হয়েছে। তারাই সরিতার যাওয়ার টাকার বন্দোবস্ত করে দিয়েছেন।

এমনকি টুর্নামেন্টে নামার জন্য জুতাও ছিল না তার। তার কোচ মধুকান্ত পাঠক জুতা কিনে দিয়েছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা