kalerkantho

বুধবার । ১৪ আশ্বিন ১৪২৮। ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ২১ সফর ১৪৪৩

করোনা মহামারিতে সোশ্যাল স্টিগমা রুখতে তরুণদের ডিজিটাল সমাধান

অনলাইন ডেস্ক   

২১ জুলাই, ২০২০ ২৩:০৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনা মহামারিতে সোশ্যাল স্টিগমা রুখতে তরুণদের ডিজিটাল সমাধান

করোনা আক্রান্ত মানুষ এবং সম্মুখ যোদ্ধাদের প্রতি সামাজিক বৈষম্য ও স্টিগমা রোধ করতে, ডিজিটাল জগতে শান্তি ও সহিষ্ণুতা বজায় রাখতে ইউএনডিপির চলমান কার্যক্রমের অংশ হিসেবে তরুণদের জন্য আয়োজন করা হয় ডিজিটাল খিচুড়ি চ্যালেঞ্জ প্রতিযোগিতা।

মাস ব্যাপী বিভিন্ন কার্যক্রম শেষে অনলাইনে প্রতিযোগিতাটির ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয় মঙ্গলবার। ৫০০ আবেদনকারীদের মধ্য থেকে নির্বাচিত ১৪টি দল নিয়ে তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হয় আইডিয়া ল্যাব। পরবর্তীতে বিকারকমণ্ডলীর সামনে ১৪টি দল তাদের আইডিয়া উপস্থাপন করে। স্টার্টআপের ক্ষেত্রে ‘বিডি ফ্যাক্ট চেক’ চ্যাম্পিয়ন এবং ‘স্বপ্ন জয়’ রানার আপ হয়। পাঁচফোড়ন এবং স্বয়ংকে আইডিয়া স্তরে যথাক্রমে চ্যাম্পিয়ন ও প্রথম রানার-আপ হিসাবে ঘোষণা করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দানকালে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, চলমান এই সংকটে সোশ্যাল স্টিগমা পরিস্থিতিকে আরো সংকটময় করে তুলছে। এ সময়ে ইউএনডিপি ও আইসিটি বিভাগের এরকম একটি সময়পোযোগী উদ্যোগ নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবি রাখে। তিনি সবাইকে গুজব বা ভুল তথ্য থেকে সাবধান থাকতে অনুরোধ জানান।

ইউএনডিপির সহকারি আবাসিক ভ্যান নুয়েন বলেন, কভিড-১৯ কেবল মহামারি নয় বরং এমন এক সংকট, যা বিদ্যমান অর্থনৈতিক, সামাজিক কাঠামো এবং বিভাজনকে ঘিরে বেড়েই চলেছে। এই জরুরি পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য ঝুঁকি এবং অর্থনৈতিক মন্দা ঠেকাতে যেমন অধিকাংশ সময়, অর্থ এবং মনোযোগ ব্যয় হচ্ছে, তেমনি সামাজিক বৈষম্য, কুসংস্কার, ঘৃণা এবং অভ্যন্তরীণ কোন্দলের মতো বিষয়গুলো থেকে যাচ্ছে আড়ালে। সে ক্ষেত্রে তরুণরা পারেন সামাজিক সংহতি  এবং পারস্পারিক সহাবস্থান বজায় রাখতে তাদের উদ্ভাবনী ক্ষমতা দিয়ে।

সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ইউএনডিপির প্রজেক্ট ম্যানেজার রবার্ট স্টোলেম্যান, স্টার্টআপ বাংলাদেশের বিনিয়োগ পরামর্শদাতা টিনা জাবিন, ইউনিভার্সিটি অফ লিবারেল আর্টস বাংলাদেশের (ইউএলবি) মিডিয়া স্টাডিজ অ্যান্ড জার্নালিজম বিভাগের অধ্যাপক সুমন রহমান, এবং তাজিন ওয়াইওয়াই গোষ্ঠীর সিইও শাদিদ।



সাতদিনের সেরা