kalerkantho

শুক্রবার । ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭। ৭ আগস্ট  ২০২০। ১৬ জিলহজ ১৪৪১

রাজশাহী প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়

ভেন্টিলেটর ‘দুর্বার কাণ্ডারি’ তৈরি করল শিক্ষার্থীরা

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

১৫ জুলাই, ২০২০ ১০:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভেন্টিলেটর ‘দুর্বার কাণ্ডারি’ তৈরি করল শিক্ষার্থীরা

করোনাকালে ভেন্টিলেটরের সংকট নিরসনের লক্ষ্যে এক ধরনের ইমার্জেন্সি ভেন্টিলেটর তৈরি করেছে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) একদল শিক্ষার্থী। বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মাসুদ রানার তত্ত্বাবধানে দুই মাসের অধিক সময়ের চেষ্টায় ভেন্টিলেটরটি তৈরিতে সফল হন তাঁরা। ভেন্টিলেটরটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘দুর্বার কাণ্ডারি’।

এই ভেন্টিলেটরটি ওয়েব বেইজড ও ম্যানুয়ালি-দুই পদ্ধতিতেই কাজ করবে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে ভেন্টিলেটরটি সফলভাবে চালু করা সম্ভব হয়। এই ভেন্টিলেটরের মাধ্যমে রোগীদের সম্পূর্ণ সেবা দেওয়া সম্ভব বলে দাবি করেন অধ্যাপক মাসুদ রানা।

এই ভেন্টিলেটর তৈরিকারী দলটির শিক্ষার্থীরা জানান, অত্যন্ত কম খরচে দেশীয় প্রযুক্তিতে ভেন্টিলেটরটি তৈরি করা হয়েছে। এর পরিচালনাও অনেক সহজ ও নিরাপদ। করোনাকালে বিশ্বের স্বনামধন্য এমআইটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রণীত ইমার্জেন্সি ভেন্টিলেটরের মডেল অনুসরণ করে সম্পূর্ণ নতুন আঙ্গিকে দুর্বার কাণ্ডারি তৈরি করা হয়েছে।

দুর্বার কাণ্ডারি দলের তত্ত্বাবধায়ক ও প্রকল্প পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. মাসুদ রানা বলেন, ‘এই ভেন্টিলেটরটি মাত্র ৩০ থেকে ৩৫ হাজার টাকা ব্যয়ে প্রস্তুত করা যাবে। এটি শুধু করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চাহিদার কথা ভেবে তৈরি করা হয়েছে। এই ভেন্টিলেটরকে আরো উন্নত করার জন্য আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল ইসলাম সেখ বলেন, ‘ভেন্টিলেটরটি তৈরির জন্য আমাদের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা দীর্ঘদিন ধরে কাজ করেছেন। তাঁরা সফলও হয়েছেন। এই ভেন্টিলেটর বাংলাদেশের ভেন্টিলেটর সংকট দূর করতে অগ্রণী ভূমিকা রাখবে বলে আমার প্রত্যাশা।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা