kalerkantho

রবিবার । ২৮ আষাঢ় ১৪২৭। ১২ জুলাই ২০২০। ২০ জিলকদ ১৪৪১

বাঁশের তৈরি অভিনব পানির বোতল, বেড়েই চলেছে চাহিদা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৯ জুন, ২০২০ ২০:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাঁশের তৈরি অভিনব পানির বোতল, বেড়েই চলেছে চাহিদা

বাঁশের তৈরি পানির বোতল! অবাক হচ্ছেন? ভারতের ত্রিপুরার ব্যাম্বু অ্যান্ড কেন ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটের (বিসিডিআই) তৈরি এই অভিনব সৃষ্টি এখন দেশটির বাজারে নয়া ট্রেন্ড। প্রথমে এটা সকলের নজরে না এলেও সামনে নিয়ে আসেন বলিউড অভিনেত্রী রবিনা ট্যান্ডন।

রবিনা ট্যান্ডন ত্রিপুরার পুনর্বাসন ও বৃক্ষরোপণ কর্পোরেশন থেকে অর্ডার দিয়ে বাঁশের তৈরি বোতল কেনেন ও সোশ্যাল মিডিয়ায় তা পোস্ট করেন। আর তার সেই একটা টুইটের পরই সকলের নজর এখন এই দুরন্ত পানির বোতলের ওপর। অভিনব পানির বোতলের চাহিদা এখন দিন দিন বেড়েই চলেছে।

ইন্ডিয়ান ফরেস্ট সার্ভিস অফিসার প্রবীণ পাসওয়ান টুইটে জানিয়েছেন, রবিনা ট্যান্ডন এটি অর্ডার করতেই ভাইরাল হয়ে যায়। এটি দেখতে সুন্দর জিনিস। ত্রিপুরার স্থানীয় শিল্পীরাই তৈরি করেছেন এটি। একদম ইকোফ্রেন্ডলি প্রোডাক্ট। ডিজাইন ও ফিনিশিংয়ের জন্য আলাদা মার্কস তো দিতেই হয়!

বাঁশের তৈরি পানির বোতলের চাহিদা আর ত্রিপুরার নাম এখন সকলের মুখে। প্রতিদিনই বাড়ছে অর্ডারের সংখ্যায়। বিপুল সাড়া পাওয়ায় ত্রিপুরা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবও অভিনেত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তিনি টুইটে লিখেছেন, রবিনাজির এই অনুপ্রেরণায় স্থানীয় শিল্পীরা আরো উদ্বুদ্ধ হবেন। কৃতজ্ঞতার নিদর্শন হিসেবে আমরা ওই প্রোডাক্টটি খুব তাড়াতাডি় পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করব। 

বিসিডিআইয়ের প্রধান ড অভিনব কান্ত জানান, এটি সম্পূর্ণ লিক-প্রুফ ও স্বাস্থ্যকর পানির বোতল। বাঁশের সঙ্গে স্টিল, গ্লাস ও তামার আস্তরণ দিয়ে তৈরি হয়েছে বোতলটি। এর ফলে জীবাণু বৃদ্ধি, গন্ধ ও ফুটো হয়ে যাওয়া-কোনোটাই হওয়া সম্ভব নয়। তিনি বলেন, গোটাটাই আমরা ডিজাইন করেছি। তৈরিও করেছি আমরা।

সূত্র: এই সময়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা