kalerkantho

শনিবার । ২৭ আষাঢ় ১৪২৭। ১১ জুলাই ২০২০। ১৯ জিলকদ ১৪৪১

সাত ফুট তিন ইঞ্চি উচ্চতার সুবেল

জিন্নাত আলীর মৃত্যুর পর দেশের দীর্ঘকায় মানুষ

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া   

৩ জুন, ২০২০ ০৭:৫৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাত ফুট তিন ইঞ্চি উচ্চতার সুবেল

কক্সবাজারের জিন্নাত আলীর মৃত্যুর পর দেশের সবচেয়ে দীর্ঘকায় মানুষ ধরা হয় কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের সুবেল আলীকে (২২)। তাঁর উচ্চতা সাত ফুট তিন ইঞ্চি। তবে ব্রেন টিউমারসহ নানা স্বাস্থ্য জটিলতায় ভুগছেন তিনি। চিকিৎসার সামর্থ্য নেই সুবেলের পরিবারের। এ অবস্থায় সরকারের সহায়তা চেয়েছেন তাঁর বাবা ইউনুস আলী ও মা পান্না খাতুন।

সুবেলের বাড়ি দৌলতপুর উপজেলার সংগ্রামপুরে। অস্বাভাবিক উচ্চতার কারণে তাঁকে লাঠি ভর দিয়ে চলাফেরা করতে হয়। ব্রেন টিউমারসহ নানা রোগেও ভুগছেন তিনি। অতিরিক্ত উচ্চতার জন্য সুবেল তেমন কোনো কাজও করতে পারেন না। দিন দিন তাঁর পা ফুলে যাচ্ছে। শুধু হোমিওপ্যাথি ওষুধেই চলছে তাঁর চিকিৎসা। সুবেলকে দেখতে তাঁদের বাড়িতে প্রতিদিন ভিড় করছে মানুষ। তাঁর সঙ্গে ছবি তুলছে, ভিডিও করছে। কিন্তু এসব ভালো লাগে না তাঁর। সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চান সুবেল।

সুবেল বলেন, ‘লাঠি ভর না দিলে আমি চলতে পারি না। দিন দিন পা ফুলে যাচ্ছে। ব্রেন টিউমারও আছে। উন্নত চিকিৎসার মাধ্যমে আমি স্বাভাবিক হতে চাই। বাঁচতে চাই নিজের মতো করে। কিন্তু সেই সামর্থ্য তো আমার বাবার নেই। কী করে বাঁচব আমি!’

বাবা ইউনুস আলী জানান, ১৩ বছর পর্যন্ত সুবেলের উচ্চতা স্বাভাবিকভাবেই বাড়ছিল। এর পর থেকেই অস্বাভাবিকভাবে বাড়তে থাকে তাঁর উচ্চতা। নিজের ও স্ত্রীর উচ্চতা স্বাভাবিক। সুবেলরা দুই ভাই এক বোন। বোন সবার বড়। সুবেল মেজো। অন্য ভাই-বোনেরও কোনো সমস্যা নেই। তাঁরা স্বাভাবিক। তিনি বলেন, ‘ছেলের জন্য কষ্ট হয়। তার জন্য কিছু করতে পারছি না। আমার ছেলের উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন। এ বিষয়ে সরকারের সহযোগিতা কামনা করছি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা