kalerkantho

শনিবার । ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ৪ রজব জমাদিউস সানি ১৪৪১

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ভালো ও মহৎ উদ্যোগ : তসলিমা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ জানুয়ারি, ২০২০ ১৫:৪৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ভালো ও মহৎ উদ্যোগ : তসলিমা

ফাইল ছবি।

বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে উত্তাল মুম্বাই, কলকাতা, দিল্লিসহ ভারতের বিভিন্ন শহর ও প্রদেশ। এনিয়ে উত্তাল ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে পুলিশের গুলি ও সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনকে (সিএএ) ‘মহৎ’ ও ‘খুবই ভালো’ বলে আখ্যায়িত করেছেন তসলিমা নাসরিন।

শুক্রবার কেরালা সাহিত্য উৎসবের দ্বিতীয় দিন ‘এক্সাইল : এ রাইটারস জার্নি’ নামে এক সেশনে বক্তব্য রাখেন তসলিমা। এসময় তিনি বলেন, বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের নিপীড়িত ধর্মীয় জনগোষ্ঠীকে ভারতের নাগরিক্ত দেওয়া একটা ভালো উদ্যোগ। কিন্তু আমার মতো মানুষেরাও নাগরিকত্বের দাবিদার। তাদেরও ভারতে থাকার অধিকার রয়েছে। নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন একটি অত্যন্ত ভালো ও মহৎ উদ্যোগ।

এসময় তিনি আইনটিতে অন্যান্য নিপীড়িত গোষ্ঠীর তালিকায় মুসলিম, মুক্ত চিন্তাবিদ ও নাস্তিকদের যোগ করার আহ্বানও জানিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, ইসলামের আরো গণতান্ত্রিকরণ ও শুদ্ধিকরণ করা উচিৎ। আমাদের আরো মুক্ত চিন্তাবিদ দরকার। ইউনিফর্ম সিভিল কোড সমতার ভিত্তিতে হওয়া উচিৎ, ধর্মের ভিত্তিতে নয়।

সন্দেহভাজন জঙ্গি হামলায় নিহত বাংলাদেশের এক ব্লগারের বিষয়ে তিনি বলেন, এসব ব্লগাররা অনেকে প্রাণ বাঁচাতে ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দিয়েছেন। তারা কেন ভারতে আসতে পারবে না? আজ, ভারতের মুসলিম সম্প্রদায় থেকে আরো মুক্ত চিন্তাবিদ, ধর্মনিরপেক্ষতাবাদী, নারীবাদী দরকার।

সিএএ অনুসারে, ভারতের তিন প্রতিবেশী দেশ থেকে ছয়টি সংখ্যালঘু ধর্মীয় জনগোষ্ঠীকে নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। যদি তারা প্রমাণ করতে পারে যে, তারা ভারতে ২০১৫ সালের আগে এসেছে। তবে ওই সংখ্যালঘুদের মধ্যে মুসলিমরা অন্তর্ভুক্তি নেই। 

সূত্র: এএনআই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা