kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জানুয়ারি ২০২০। ১৪ মাঘ ১৪২৬। ২ জমাদিউস সানি ১৪৪১     

১০০ রুপি চাইলেই বের হচ্ছে ৫০০, অতঃপর...

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ জানুয়ারি, ২০২০ ১৬:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



১০০ রুপি চাইলেই বের হচ্ছে ৫০০, অতঃপর...

ভারতের কর্নাটকের একটি রাষ্ট্রাত্ত ব্যাংকের এটিএম বুথে একশ রুপির জন্য বোতাম টিপলেই বের হয়ে আসছে পাঁচশ রুপির নোট। আর এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই এটিএমের সামনে লম্বা লাইন গ্রাহকদের। বিষয়টি যখন পুলিশ এবং ব্যাংক কর্তৃপক্ষের নজরে আসে ততক্ষণে এটিএম থেকে লোপাট হয়ে গেছে এক লক্ষ ৭০ হাজার ভারতীয় রুপি। পরে অবশ্য গ্রাহকদের বুঝিয়ে কিছু অর্থ উদ্ধার করেছে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। অবশিষ্ট অর্থও উদ্ধার করা সম্ভব হবে বলে মনে করছেন ব্যাংক কর্মকর্তরা। এই ঘটনা ঘটেছে কর্নাটকের মাদিকারি শহরে।

দেশটির স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, একশ রুপি তুলতে চাইলে এটিএম থেকে বেরিয়ে আসছে কড়কড়ে পাঁচশ রুপির নোট। কেউ হয়তো তিনশ রুপি তুলতে চেয়ে বোতাম টিপেছেন, এটিএম তার হাতে ধরিয়ে দিচ্ছে নগদ এক হাজার পাঁচশ রুপি। স্বভাবতই প্রথম গ্রাহক এই সুযোগ লুফে নেন। এই ঘটনার দীর্ঘক্ষণ পর ওই এটিএমের ঝাঁপ বন্ধ করে দেয় ব্যাংক। কিন্তু ততক্ষণে যা হওয়ার হয়ে গেছে। খোয়া গিয়েছে এক লক্ষ ৭০ হাজার রুপি।

কোডাগু জেলার পুলিশ সুপার সুমন ডি পেন্নেকর জানান, ওই এটিএম কাউন্টারটি কানাড়া ব্যাংকের। কিভাবে এই ঘটনা ঘটল তা জানতে এরই মধ্যে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। ব্যাংকের পক্ষ থেকেও পৃথকভাবে তদন্ত শুরু হয়েছে। 

পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, এটিএমে টাকা ভর্তি করতে গিয়েই এই সমস্যার সূত্রপাত। সম্ভবত, এটিএমের ভিতর টাকা রাখার স্তর বিভাজন করতে গিয়েই এটিএমে টাকা ভরার এজেন্সি ভুল করেছে। ঘটনার দিন ওই এটিএমে একশ টাকা নোটের পরিবর্তে পাঁচশ টাকার নোট ইস্যু করে ছিল ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। এজেন্সির লোকেরা একশ টাকার নোট রাখার স্তরে সম্ভবত পাঁচশ টাকার নোট রেখে দিয়েছিলেন। তাই একশ টাকার নোট চেয়ে বোতাম টিপলেই পাঁচশ টাকার নোট বের করে দিচ্ছিল এটিএম। এমনটাই মনে করা হচ্ছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা