kalerkantho

বুধবার । ২২ জানুয়ারি ২০২০। ৮ মাঘ ১৪২৬। ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

এখানে মৃত পাখিদের বৃষ্টি হয়েছে নাকি! (ভিডিওসহ)

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১২:৫২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এখানে মৃত পাখিদের বৃষ্টি হয়েছে নাকি! (ভিডিওসহ)

শত শত পাখি রাস্তায় মৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। দেখলে মনে হবে এখানে পাখির বৃষ্টি হয়েছে, মৃত পাখিদের বৃষ্টি! যেন সবগুলো প্রাণ হারিয়ে আকাশ থেকে বৃষ্টির বড়সর ফোঁটার মতো টপাটপ পড়েছে। 

উত্তর ওয়েলসের অ্যাঙলেসের রাস্তায় ৩ শোর বেশি স্টার্লিং পাখির নিথর দেহগুলো পড়ে ছিল। গত মঙ্গলবার দুপুরে এই মন খারাপের দৃশ্যটি প্রথম দেখেন হান্না স্টিভেন্স। তিনি আরো দেখেছেন, পাখিগুলো মৃত্যুর আগে রাস্তাতেই কিছু খুঁটে খেয়েছিল। পরে তিনি তার প্রেমিক ড্যাফিড এডওয়ার্ডসকে ঘটনাটি জানান। পরে ড্যাফিড এসে এই বিরল দৃশ্যটি মোবাইলে ধারণ করেন। 

৪১ বছর বয়সী স্থপতি এডওয়ার্ডস বলেন, সেখানে ৩০০টিরও বেশি সংখ্যক পাখি ছিল। আমি ১৫০টি পর্যন্ত গুনে ক্লান্ত হয়ে গিয়েছি। আরো অনেক পাখি ছিল। রাস্তাজুড়ে অসংখ্য পাখি পড়েছিল। দেখে মনে হয়েছিল, এরা সবাই আকাশ থেকে পড়েছে। 

গতকাল বিকেলে আমার বান্ধবী ডাক্তারের কাছে যাচ্ছিল এবং এদেরকে দেখতে পায়। যাওয়ার পথে শত শত পাখি আকাশে উড়ছিল। সে দারুণ এক দৃশ্য ছিল, আমাকে জানিয়েছে সে। কিন্তু ফিরতি পথে এমন করুণ দৃশ্য। সে যখন আমাকে জানাল, আমি বিশ্বাস করিনি। তাই নিজেই চলে এসেছি। বিষয়টা বড়ই অদ্ভুত! কিছু পাখি তখনও বেঁচেছিল বলে মনে হয়েছি। কিন্তু কিছুই করার ছিল না। 

স্থানীয় প্রাণী ও উদ্ভিদ স্বাস্থ্য এজেন্সি পাখিদের মৃতদেহ নিয়ে গেছে পরীক্ষার জন্যে। পরীক্ষায় বেরিয়ে আসবে আসলে তারা বিষক্রিয়ার শিকার হয়েছিল কিনা। বিষয়টা খুবই উদ্বেগজনক এবং পরীক্ষায় ফলাফলের জন্যে অপেক্ষা করতে হবে বলে জানা এজেন্সির মুখপাত্র। 

এ ঘটনার বিষয়ে নর্থ ওয়েলস পুলিশ রুরাল ক্রাইম টিমকে অবহিত করা হয়েছে। এই বিভাগের এক কর্মকর্তা জানান, শত শত স্টার্লিং মারা গেছে। তবে অ্যাঙলেসের কোন রাস্তায় তারা মারা পড়েছে তা এখনো শনাক্ত করা হয়নি। আমরা এ ঘটনার কারণ জানতে পরীক্ষার রিপোর্টের জন্যে অপেক্ষা করবো। 

সূত্র: ডেইলি মেইল 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা