kalerkantho

সোমবার । ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ১ পোষ ১৪২৬। ১৮ রবিউস সানি                         

মরা তিমির পেট থেকে বের হলো ১০০ কেজি প্লাস্টিক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৮:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মরা তিমির পেট থেকে বের হলো ১০০ কেজি প্লাস্টিক

মারা যাওয়া তিমির পেট থেকে বের করা হয়েছে প্লাস্টিকের দড়ি, প্লাস্টিকের কাপ, প্লাস্টিকের গ্লাভস এবং জাল। সব মিলিয়ে পেট থেকে বের হওয়া এই জঞ্জালের ওজন একশ কিলোগ্রাম! স্কটল্যান্ডের সমুদ্র সৈকতে একটি মরা তিমি মাছের পেট থেকে মিলেছে বিপুল পরিমাণ সামুদ্রিক বর্জ্য। 

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার প্রায় ২০ টন ওজনের মরা তিমির দেহ আইল অব হ্যারিস পর্যন্ত এসে পৌঁছায়। স্থানীয় বাসিন্দারা প্রথমে ওই তিমিটি দেখতে পান। এই ঘটনার পরে সমুদ্রের দূষণ নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন তারা। 

স্থানীয় বাসিন্দা ডেইনি প্যারি বলেন, খুবই দুঃখের বিষয় যে আমরা দেখতে পাচ্ছি তিমির পেটের মধ্যে থেকে মাছ ধরার জালের মতো জিনিস বের হচ্ছে।

স্কটিশ মেরিন অ্যানিমাল স্ট্র্যান্ডিং স্কিম ওই তিমির ছবি ফেসবুকেও শেয়ার করেছে। সংগঠনটি তিমি এবং ডলফিনের মৃত্যুর কারণ নির্ধারণ করে। তাদের কর্মকর্তারা জানান, তিমির পেট থেকে প্রায় একশ কিলোগ্রাম সামুদ্রিক বর্জ্য মিলেছে। 

সংগঠনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এসব জিনিস তিমির পেটে বেশ কিছু দিন ধরে জমা হচ্ছিল। ফেসবুক পেজে ওই সংগঠন লিখেছে, তিমির পেট থেকে এত প্লাস্টিক বের হওয়া রীতি মতো ভয়ানক। এতটা প্লাস্টিক মাছের পাচন পদ্ধতির ওপর খুবই খারাপ প্রভাব ফেলেছিল।

তাদের আরো শঙ্কা সমুদ্রের এমন দূষণের ফলে আরো অনেক প্রাণীর এইরকমভাবে মৃত্যু হচ্ছে। সমুদ্রের এই দূষণের একটা বড় কারণ মানুষ। মানুষের ফেলা বা ব্যবহৃত নানা বর্জ্য দিনের পর দিন নোংরা হচ্ছে সমুদ্রের পানি। সারাবিশ্বে সামুদ্রিক দূষণ মাত্রাছাড়া হয়ে দাঁড়াচ্ছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা