kalerkantho

মঙ্গলবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১২ রবিউস সানি     

টানা ৯ ঘণ্টা ঘুমানোর চাকরি, বেতন লক্ষাধিক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৬:৪৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টানা ৯ ঘণ্টা ঘুমানোর চাকরি, বেতন লক্ষাধিক

সচরাচর অফিসে কাজ করতে হয় সবাইকে। কিন্তু এবার অফিসে গিয়ে নিশ্চিন্তে ঘুমানোর জন্য মোটা টাকার বেতন দিতে চেয়েছে ভারতীয় এক সংস্থা। ওই চাকরি আসলে ইন্টার্নশিপ। ঘুমানোর জন্য শিক্ষানবিশদের কাজ দিতে চায় স্টার্টআপ ওয়াকফিট। নানা কারণে মানুষের ঘুম না-হলে সহজ উপায় বের করে দেওয়া হয় এই স্টার্টআপের পক্ষ থেকে।

স্লিপ সলিউশনস স্টার্টআপ 'ওয়াকফিট' এবার তাদের 'স্লিপ ইন্টার্নশিপ ২০২০ ব্যাচ' প্রজেক্টের জন্য কিছু সংখ্যক শিক্ষানবিশ নিয়োগ করতে যাচ্ছে। নিজেদের ওয়েবসাইটে চাকরি প্রত্যাশীদের জন্য একটি পোস্ট করেছে সংস্থাটি।

ওই চাকরি পেতে হলে দুটি মূল যোগ্যতা থাকতে হবে। প্রথমত, আগ্রহী প্রার্থীকে যে কোনো ব্যাপারে আগ্রহী হতে হবে। দ্বিতীয়ত, একেবারে যেন সহজাত প্রবৃত্তিতেই নিত্যদিন তার ঘুম আসে। তবে এই চাকরির জন্য নির্দিষ্ট ড্রেস কোড রয়েছে। পায়জামা পরে করতে হবে চাকরি।

ইন্টার্নশিপে প্রতি রাতে ৯ ঘণ্টা ঘুমাতে হবে। মোট একশ দিনের জন্য এই কাজে একজন ইন্টার্নকে নিযুক্ত করা হবে। আর এই সময়ে কাজ করার জন্য সেই ইন্টার্ন পেয়ে যাবেন লক্ষাধিক টাকা।

ওয়াকফিট ডটকম এর ডিরেক্টর এবং প্রতিষ্ঠাতা চৈতন্য ঠারামলিঙ্গেগোওডা এ ব্যাপারে বলেন, আমরা ভারতের সেরা ঘুমন্ত ব্যক্তির খোঁজে রয়েছি। যে বা যারা ঘুমের জন্য এক কথাতেই যে কোনো কাজ ছেড়ে চলে আসতে পারেন। এ ধরনের ইন্টার্নশিপ চালু করার একটাই উদ্দেশ্য- মানুষ যেন সমস্ত চিন্তাভাবনা দূরে সরিয়ে রেখে নির্দিষ্ট কিছু সময়ের জন্য নিশ্চিন্তে ঘুমাতে পারে।

ইন্টার্নদের ঘুমের ধরন পরীক্ষা করে দেখা হবে। এছাড়াও কাউন্সেলিং সেশন এবং স্লিপ ট্র্যাকারও দেওয়া হবে ইন্টার্নদের। তাদের ম্যাটরেসে মানুষের ঘুমের অভিজ্ঞতা আসলে কী রকম তা পরীক্ষা করে দেখা হবে। সংস্থা সেটা দেখভাল করবে।

সংস্থার প্রধান রামলিঙ্গেগোওডা বলছেন, মানুষের দৈনন্দিন ব্যস্ততার জীবনে ঘুমকে নিয়মিত ফিরিয়ে আনতেই এই প্রয়াস।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা