kalerkantho

বুধবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৩ রবিউস সানি     

মদ্যপ অবস্থায় মুরগি হত্যা, অভিযোগ পেয়ে তদন্তে নেমেছে পুলিশ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ নভেম্বর, ২০১৯ ২০:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মদ্যপ অবস্থায় মুরগি হত্যা, অভিযোগ পেয়ে তদন্তে নেমেছে পুলিশ

মদ্যপ অবস্থায় প্রতিহিংসা স্পৃহা যে কোনো কিছুকেই ছাড় দেয় না, তা প্রমাণ করে দিল ভারতের বিহারের কৈমুর জেলার এক অদ্ভুত ঘটনা। অভিযোগ উঠেছে, মদ্যপ অবস্থায় উত্তেজিত সাত ব্যক্তি মিলে হত্যা করেছে এক পোষা মুরগিকে।

গত বুধবার নেশার ঘোরে ওই সাতজন অভিযুক্ত একটি মুরগিকে মেরে ফেলেছে বলেই অভিযোগ করেছেন মুরগির মালিক! পুলিশের একজন কর্মকর্তা শুক্রবার জানিয়েছেন, অদ্ভুত ঘটনাটি ঘটেছে দুর্গাবতী থানা এলাকার তিরোজপুর গ্রামে। ওই গ্রামের বাসিন্দা কমলা দেবীর প্রতিবেশী একটি পরিবারের সঙ্গে বিরোধ ছিল। দিন দুয়েক আগে কোনো একটি ঘটনা নিয়ে ওই দুই পরিবারের মধ্যে বেশ কথা কাটাকাটি হয়। এরপর কমলা দেবীর প্রতিবেশীদের একজন দৌড়ে গিয়ে কমলা দেবীর একটি পোষা মুরগিকে ধরে ফেলে এবং তাকে মেরে ফেলে। 

অভিযোগ উঠেছে, ওই সময় কমলা দেবী এবং তার ছেলে ইন্দলের সঙ্গেও হাতাহাতি হয় অভিযুক্তদের। মোহনিয়ার পুলিশ সুপার রঘুনাথ সিং শুক্রবার বলেন, কমলা দেবীর বয়ান অনুযায়ী এ ঘটনা প্রাথমিক তদন্ত করে ভারতীয় দণ্ডবিধির ধারা ৪২৯, ৩৪১, ৩২৩ এর অধীনে একটি মামলা করা হয়েছে। এই অভিযোগে সাতজনের ব্যক্তির নাম রয়েছে। 

তিনি আরো বলেন, মৃত মুরগির ময়নাতদন্ত দুর্গাবতী পশু হাসপাতালে করা হয়েছে। পরিবারের অভিযোগ, ওই মুরগিকে মেরে ফেলা হয়েছে এবং তার হত্যাকারীরা নেশগ্রস্ত ছিল।

পুলিশ বলছে, ময়নাতদন্তের রিপোর্টে মুরগিটির ঘাড়ের পাশে ব্লক দেখা গেছে। পুলিশ সুপার জানিয়েছেন যে, পুলিশ এই ঘটনাটির তদন্ত করছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা