kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৭ রবিউস সানি ১৪৪১     

বেপরোয়া বাইক আরোহীকে ধরে যে কারণে কেক খাওয়ালো পুলিশ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ নভেম্বর, ২০১৯ ১৭:৪৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বেপরোয়া বাইক আরোহীকে ধরে যে কারণে কেক খাওয়ালো পুলিশ

ট্রাফিক আইনে একের পর এক বড় অঙ্কের জরিমানার কথা শোনা যাচ্ছে। এমনকি সেই আইনে গরুর গাড়িকেও জরিমানা করার ঘটনা ঘটেছে। তবে ব্যতিক্রম ঘটনাও আছে। জোরে গাড়ি চালিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়ার পর জন্মদিনের কেক খাইয়ে বাড়ি পাঠিয়েছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে থাইল্যান্ডে এক কিশোরের সঙ্গে।

গতির ঊর্দ্ধসীমার থেকেও বেশি জোরে বাইক চালানোর জন্য এক কিশোরকে ধরে ট্রাফিক পুলিশ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পুলিশ তাকে চালান না ধরিয়ে কেক দেন। সেই কাহিনী এখন ফেসবুকে ভাইরাল। ফেসবুকের যে পেজে এই ছবিসহ ঘটনার কথা প্রথমে পোস্ট করা হয়েছিল, সেটি ডিলিট করে দেওয়া হয়। কিন্তু ততক্ষণে ভাইরাল হয়ে গেছে এই ছবি, ভিডিও। এর পর ফেসবুকেই অন্য একটি পেজে পুরো ঘটনা নিয়ে আরেকটি পোস্ট করা হয়।

তাতে লেখা হয়, হেলমেট, নম্বরপ্লেট ছাড়াই ওই কিশোর বাইক চালাচ্ছিল। তার গতিও ছিল যথেষ্ট বেশি। পুলিশ তাকে আটকায়। পুলিশ ধরতেই হঠাৎ সে কান্নায় ভেঙে পড়ে। ওই পুলিশকর্মী প্রথমে ভেবেছিলেন, জরিমানার ভয়ে সে কান্নাকাটি শুরু করেছে। কিন্তু কিশোরের এমন কান্না দেখে সন্দেহ হয় তাদের। জিজ্ঞেস করায় সে জানায়, তার জন্মদিন, কিন্তু বাড়ির সবাই সেটা ভুলে গেছে। সেই দুঃখে, রাগে সে জোরে বাইক চালাচ্ছিল।

এরপর পুলিশ আর তাকে জরিমানা করেনি। উল্টো সামনের দোকান থেকে কেক-মোমবাতি কিনে এনে জন্মদিন পালন করেন পুলিশকর্মী। আবারো কান্নায় ভেঙে পড়ে ওই কিশোর। কিন্তু এবার আর দুঃখে নয়, আনন্দে।

পাশে থাকা এক পুলিশকর্মী সেই ছবি-ভিডিও রেকর্ড করে ফেসবুকে আপলোড করে দেন। ভাইরাল হয়ে যায় সেই পোস্ট। এখন ফেসবুকের একাধিক পেজে ঘুরছে সেই ঘটনা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা