kalerkantho

সোমবার । ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১১ রবিউস সানি ১৪৪১     

‘বুলবুলে’র চেয়েও বেশি ভয়ানক ঘূর্ণিঝড় হবে ‘নাকরি’

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ২০:৩৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘বুলবুলে’র চেয়েও বেশি ভয়ানক ঘূর্ণিঝড় হবে ‘নাকরি’

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এর রেশ কাটতে না কাটতেই ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘নাকরি’। ‘বুলবুল’ এর মতোই প্রাথমিকভাবে দক্ষিণ চীন সাগরে তৈরি ‘নাকরি’ বুলবুলের চেয়েও বেশি শক্তিশালী হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

যে প্রাথমিক ঘূর্ণিঝড় থেকে ‘বুলবুল’ সৃষ্টি হয়েছিল তার নাম ছিল ‘মাতমো’। এই ‘মাতমো’র উত্‍সস্থল ছিল দক্ষিণ চীন সাগর। মরে যাওয়া ‘মাতমো’ থেকেই ফের তৈরি হয়েছিল ‘বুলবুল’। যা বিরাট ক্ষতি করেছে বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের বেশ কিছু অঞ্চলে। 

আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন,  ওই একই ধরনের আরও একটি ঘূর্ণিঝড় তৈরি হচ্ছে দক্ষিণ চীন সাগরেই। যার নাম দেওয়া হয়েছে ‘নাকরি’।

আপাতত যথেষ্ট শক্তিশালী রয়েছে এই ঘূর্ণিঝড় এবং তা ধীরে ধীরে এগোচ্ছে ভিয়েতনামের ভূমি লক্ষ্য করে। ভিয়েতনামের উপকূলে ব্যাপক বৃষ্টিপাত ঘটানোর পর শক্তিক্ষয় হবে এর। এরপর দক্ষিণ থাইল্যান্ড অতিক্রম করে মায়ানমারের দক্ষিণ ভাগে এসে পৌঁছবে তা। মায়ানমার এসে পৌঁছালেও এর লণ্ডভণ্ড করার শক্তি তেমন থাকবে না। খুব বেশি হলে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

মায়ানমারের পর ‘মাতমো’র মতোই বঙ্গোপসাগরের ওপরে আসবে এই ঘূর্ণিঝড়। আবহাওয়াবিদদের আশঙ্কা এখানেই। বঙ্গোপসাগর থেকে ফের একবার শক্তি সঞ্চয় করে আরো শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে রুপ নিতে পারে এই ‘নাকরি’। আর এই ঘূর্ণিঝড় একই ধরনের আগের ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুলে’র চেয়েও বেশি ভয়ঙ্কর রুপ ধারণ করতে পারে।

তারপরে এই ঘূর্ণিঝড় ঠিক কোনদিকে যাবে, তার নিশ্চয়তা নেই। দুই বাংলাতেও আঁছড়ে পড়তে পারে। আবার তা না হয়ে ‘নাকরি’র মুখোমুখি হতে পারে অন্ধ্রপ্রদেশ ও ওড়িশাও।

আরও পড়ুন: ৬০ বছরের মধ্যে ২য় বার আসছে এমন ঘূর্ণিঝড়

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা