kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

বিশ্বজয়ী নাজমুনকে অভিনন্দন জানালেন কানাডার এমপি ডলি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ২০:২১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিশ্বজয়ী নাজমুনকে অভিনন্দন জানালেন কানাডার এমপি ডলি

বাংলাদেশের পতাকাবাহী প্রথম বিশ্বজয়ী নাজমুন নাহারকে কানাডার প্রাদেশিক পার্লামেন্টে নির্বাচিত প্রথম বাংলাদেশি এমপি ডলি বেগম অভিনন্দন জানিয়েছেন। 

১৫ অক্টোবর স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাতটায় কানাডার টরন্টো শহরে নাজমুন নাহারকে কানাডার ফ্ল্যাগ ও অন্টারিও প্রদেশের ফ্ল্যাগ পরিয়ে দিয়ে অভিনন্দিত করেন ডলি বেগম। দুজন দুজনকে জড়িয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। 

বিশ্ব অঙ্গনে বাংলাদেশি দুই অপরাজেয় নারী যারা বাংলাদেশের নামটি উজ্জ্বল করছেন পৃথিবীর দরবারে তাদেরই একজন বাংলাদেশের পতাকাবাহী প্রথম বিশ্বজয়ী নাজমুন নাহার অন্যজন কানাডার প্রাদেশিক পার্লামেন্টে নির্বাচিত প্রথম বাংলাদেশি এমপি ডলি বেগম। 

বাংলাদেশের পতাকা হাতে ১৩৫ দেশ ভ্রমণের রেকর্ড অর্জন করে নাজমুন নাহার সম্প্রতি ফিরেছেন কানাডার অন্টারিও প্রদেশের টরন্টো শহরে। এক বার্তা বিনিময়ে এমপি ডলি বেগম তাকে আমন্ত্রণ জানান টরেন্টো স্কারবরো'র কিংস্টন অফিসে।

আনন্দে উদ্বেলিত হয়েছিলেন বিশ্বাঙ্গনের বাংলাদেশি এই দুই উজ্জ্বল নক্ষত্র একই সাথে দুজন- দুজনকে কিছুটা সময় কাছাকাছি পেয়ে। তারপর তন্ময় হয়ে ডলি বেগম শুনেছিলেন নাজমুন নাহারের পৃথিবী ভ্রমণের নানা গল্প। 

এক শুভেচ্ছা বার্তায় এমপি ডলি বেগম বলেন, বাংলাদেশকে নাজমুন পরিচয় করিয়ে দিচ্ছেন সারা পৃথিবীতে। বাংলাদেশের পতাকা হাতে নাজমুন নাহারের বিশ্ব ভ্রমণনের এই রেকর্ড বাংলাদেশের জন্য এক বিশাল বড় অর্জন। বাংলাদেশের সকল মেয়েদের জন্য নাজমুন নাহার একটি বড় উৎসাহের পথ সৃষ্টি করছেন। নাজমুন নাহার আমাদের বাংলাদেশ তথা পৃথিবীর গর্ব। তার এই অর্জনকে আমি সাধুবাদ জানাই এবং সারা পৃথিবী জুড়ে বাংলাদেশের পতাকা উড়ুক এই শুভ কামনা করি নাজমুন নাহার এর জন্য। পৃথিবীব্যাপী যখন আমাদের বাংলাদেশের মেয়েরা এমন দৃষ্টান্ত গড়ে তোলেন যা আমাদের দেশকে অনেক উপরে নিয়ে যায় তা আমাদের জন্য সত্যি অনেক গর্বের। 

২০১৮ সালের ১ জুন নাজমুন নাহার যখন প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ১০০তম দেশ ভ্রমণের ঐতিহাসিক রেকর্ড সৃষ্টি করেন পূর্ব আফ্রিকার দেশ জিম্বাবুয়েতে, ঠিক একই সময়ে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ডলি বেগম ২০১৮ সালে কানাডার ওন্টারিও প্রদেশের টরেন্টো এলাকার স্কারবরো সাউথওয়েষ্ট আসন থেকে জয়ী হন কানাডার প্রাদেশিক পার্লামেন্টের প্রথম বাংলাদেশি এমপি হিসেবে। প্রথম বাংলাদেশি নারীর কানাডার পার্লামেন্টে জয়ী হওয়া বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশের নাম উজ্জ্বল করার দৃষ্টান্ত গড়েছেন ডলি বেগম। 

নাজমুন নাহার বলেন, কানাডার মতো মাল্টিকালচারাল দেশে যেখানে সারা পৃথিবীর মানুষ রয়েছে সেখানে আমাদের বাংলাদেশি একজন মেয়ে কানাডার পার্লামেন্টে প্রথমবারের মতো জয়ী হয়ে সত্যি আমাদের মুখ উজ্জ্বল করেছেন ডলি বেগম।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা