kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণে ১৫ অক্টোবর থেকে আবুধাবিতে ৪ টোল গেট

আমিরাত প্রতিনিধি   

১২ অক্টোবর, ২০১৯ ১৭:৪৫ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণে ১৫ অক্টোবর থেকে আবুধাবিতে ৪ টোল গেট

সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবি সিটিতে ট্রাফিক প্রবাহকে নিয়ন্ত্রণ করতে আগামী ১৫ অক্টোবর থেকে চারটি টোল গেট চালু হচ্ছে। গেট চারটি শেখ জায়েদ সেতু, শেখ খলিফা সেতু, মুসাফফা সেতু (আবুধাবি গেইট সিটি) এবং আল মাক্তা সেতুর কাছেই অবস্থিত। আমিরাতের যেকোনো স্থান থেকে আবুধাবি সিটিতে যেতে হলে এ চারটি টোল গেটের যেকোনো একটির নিচ দিয়েই যেতে হবে। আর গাড়ি নিয়ে যেতে হলে প্রতিবার চার দিরহাম (৯২ টাকা প্রায়) করে দিতে হবে।

অর্থাৎ ১৫ অক্টোবর হতে প্রতিটি ট্রিপের জন্য (চারটি টোল গেটের যেকোনো একটি দিয়ে আবুধাবিতে গাড়ি নিয়ে ঢুকলেই) ৪ (চার) দিরহাম করে দিনে সর্বোচ্চ ১৬ দিরহাম (৩৬৮ টাকা) দিতে হবে। ছুটির দিন বা অফপিক আওয়ারে ২ (দুই) দিরহাম বা ৪৬ টাকা করে দিতে হবে।

অফপিক আওয়ার
শুক্রবারসহ সকল ছুটির দিন অফপিক হাওয়ার। আর এ অফপিক আওয়ারে প্রতিটি ট্রিপ ২ দিরহাম। এ ছাড়া প্রতিদিনের অফপিক আওয়ারগুলো শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত এবং সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত হবে। 

গাড়ি রেজিস্ট্রেশন বা নিবন্ধন 
আবুধাবিতে নিবন্ধিত যানবাহন অর্থাৎ আবুধাবি নম্বর প্লেটের গাড়িগুলোর মালিক বা চালকগণ এ সিস্টেমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে যুক্ত হবে। তারা তালিকাভুক্ত হতে এবং তাদের অ্যাকাউন্টে চালু করতে  লিংকসহ একটি মেসেজ পাবেন। সে অনুসারে তারা এ সিস্টেমে যুক্ত হতে পারবেন। অন্যান্য প্রদেশের রেজিস্ট্রেশনকৃত গাড়িগুলোকে নতুন অ্যাকাউন্ট করতে হবে।

আবুধাবির টোল গেট ও দুবাইয়ের সালিক
আবুধাবির এ টোল সিস্টেম দুবাইয়ের সালিক তথা টোল গেটের সাথে কোনো সম্পর্ক নেই। দুবাইয়ের সালিকের জন্য গাড়িতে ট্যাগ লাগাতে হয়। আর আবুধাবির এ টোল গেটের জন্য অ্যাকাউন্ট খুলতে হয়। দুই জায়গার টোল সিস্টেম অ্যাকাউন্টে পর্যাপ্ত ব্যালেন্স থাকতে হবে। আবুধাবির টোল গেট ক্রস  করে বা পার হয়ে যাবার পর থেকে ১০ দিনের মধ্যে রেজিস্ট্রেশন করা ও টপআপ করা যাবে।

জরিমানা বা অর্থদণ্ড
রেজিস্ট্রি করা হয়নি এমন যেকোনো গাড়ি একটি টোল গেট দিয়ে পার হয়ে যাবার ১০ দিনের মধ্যে রেজিস্ট্রেশন না করলে ১০ দিন পরে প্রথম দিনের জন্য ১০০ দিরহাম (২৩০০ টাকা), দ্বিতীয় দিনের জন্য ২০০ দিরহাম (৪৬০০ টাকা), তৃতীয় দিনের জন্য ৪০০ দিরহাম (৯২০০ টাকা), এভাবে সর্বাধিক ১০,০০০ দিরহাম পর্যন্ত জরিমানা গুনতে হবে।

অপর্যাপ্ত পরিমাণ বালেন্স ছাড়া কেউ টোল গেট দিয়ে গেলে ১০ দিন পরে ৫০ দিরহাম (১১৫০ টাকা) জরিমানা দিতে হবে। আর কেউ টোল এড়ানোর জন্য তাদের গাড়ি লাইসেন্স বা নম্বর প্লেটে কোনো ধরনের রদবদল করে তাদেরও ১০,০০০ দিরহাম জরিমানা করা হবে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা