kalerkantho

বুধবার । ১৬ অক্টোবর ২০১৯। ১ কাতির্ক ১৪২৬। ১৬ সফর ১৪৪১       

মাতৃভাষা ছেড়ে হিন্দি-ইংরেজিতে উত্তর দিতে গিয়ে বিতর্কে জড়ালেন রানু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২১:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মাতৃভাষা ছেড়ে হিন্দি-ইংরেজিতে উত্তর দিতে গিয়ে বিতর্কে জড়ালেন রানু

দিনকয়েক আগে নিজের ছোটবেলার স্কুলে গিয়েছিলেন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সেলিব্রিটি বনে যাওয়া রানু মণ্ডল। তবে সেখানে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে বিপাকে পড়ে যান রানু। এজন্য শুনতে হচ্ছে কটাক্ষও।

সম্প্রতি ইন্টারনেটে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে গেছে। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, কমলা রঙয়ের শাড়ি পরে নিজের পুরনো স্কুলে উপস্থিত হয়েছেন রানু মণ্ডল। স্কুলের কচিকাঁচাদের সঙ্গে দাঁড়িয়ে আছেন তিনি। 

খুদে শিক্ষার্থীরা শিক্ষিকার সঙ্গে সুর মিলিয়ে গান গাইছেন। রানাঘাটের রানুও হাসিমুখে দাঁড়িয়ে আছেন সেখানে। হাততালি দিচ্ছেন মাঝে মাঝে। বাচ্চাদের সঙ্গে গলাও মেলাচ্ছেন। 

ভবঘুরে জীবন থেকে রানু মণ্ডল এখন সেলিব্রিটি। সে কারণে তার আশেপাশে যে কৌতূহলী চোখের আনাগোনা থাকবে, সেটা নতুন নয়। আবেগঘন মুহূর্তে রানু মণ্ডলের সঙ্গে কথাবার্তা বলা শুরু হয় একজন সাংবাদিকের। 

কেমন লাগছে, প্রশ্নটি লতাকণ্ঠী রানুর উদ্দেশে ছুঁড়ে দেন তিনি। প্রথমে ইংরেজিতে উত্তর দিতে শুরু করেন রানু। তবে ‘ভেরি নাইস’ বলার পরই হোঁচট খান তিনি। ভাঙা ভাঙা হিন্দিতেও নিজের ভাবপ্রকাশের চেষ্টা করেন ঠিকই, তবে তাতেও উত্তর সম্পূর্ণ করতে পারেননি।

ওই ভিডিও বিদ্যুতের গতিতে ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। নিজের মাতৃভাষা বাংলা ছেড়ে রানু মণ্ডলের হিন্দি এবং ইংরেজিতে উত্তর দেওয়ার চেষ্টাকে মোটেও ভালো চোখে দেখছেন না নেটিজেনরা। অনেকেই ওই ভাইরাল ভিডিওর কমেন্ট সেকশনে রানু মণ্ডলকে বাংলা ভাষায় কথা বলার পরামর্শ দেন।

রানাঘাটের ভবঘুরে জীবন থেকে রানু মণ্ডল পা রেখেছেন বলিউডে। এক লহমায় বদলে গেছে রানু মণ্ডলের জীবন। তারপর থেকে পাড়ার অলিগলি হোক কিংবা চায়ের দোকান অথবা সোশ্যাল মিডিয়া, সর্বত্রই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রানু। সাংবাদিকদের প্রশ্নবাণ সামলাতে গিয়ে আগেও বিতর্কে জড়িয়েছেন লতাকণ্ঠী গায়িকা। সেই তালিকায় নতুন সংযোজন এই ঘটনা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা