kalerkantho

অস্ত্রধারীকে পাত্তা না দিয়ে শান্তভাবে ধূমপান করেছেন তিনি (ভিডিওসহ)

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৭:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অস্ত্রধারীকে পাত্তা না দিয়ে শান্তভাবে ধূমপান করেছেন তিনি (ভিডিওসহ)

সামনে ডাকাতের উদ্ধত বন্দুকের নল। তার পরেও তাকে পাত্তা না দিয়ে ধূমপান করে চলেছেন এক ব্যক্তি। আর তার সাহসের কাছে এক রকম হার মেনে যায় ওই দুষ্কৃতিকারী। যুক্তরাষ্ট্রে এক পানশালায় ওই ঘটনা ঘটেছে। আর সেখানকার সিসিটিভি ক্যামেরায় দৃশ্যটি ধরা পড়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে গত ২৮ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রের সেন্ট লুইসের একটি পানশালায়। সেই পানশালার সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, সেখানে বসে কয়েক জন মদ্যপান করছেন। হঠাৎ করে তাদের মধ্যে কয়েকজন দু’হাত তুলে দৌড়ে পালিয়ে যাচ্ছে। 

টেবিলের নিচে লুকিয়ে পড়ছেন কেউ কেউ। কাউন্টার ছেড়ে টেবিলের নিচে লুকিয়ে যাচ্ছেন বারের টেন্ডারও। কিন্তু এক ব্যক্তির মধ্যে কোনো হেলদোল দেখা যাচ্ছে না। এরপর ক্যামেরার ফ্রেমে আসে বন্দুকওয়ালা এক ব্যক্তি। বোঝা যায়, তার ভয়েই সবাই প্রাণ বাঁচাতে দৌড়ে পালাচ্ছিলেন।

অস্ত্রধারী এবার কাউন্টার থেকে টাকা এবং একটি মোবাইল নিয়ে নেয়। যে ব্যক্তি নির্লিপ্তভাবে বসে ছিলেন, তাকেও ভয় দেখানোর চেষ্টা করে ওই অস্ত্রধারী। কিন্তু তার ওপর কোনো প্রভাব তো পড়েই না, উল্টো তিনি বিরক্তি ভরে কিছু বলেন ওই দুষ্কৃতিককারীকে। 

এমনকি ওই ডাকাতির মাঝেই মদ্যপান করেন, চুরুট জ্বালিয়ে ধূমপান করতে থাকেন। ওই ব্যক্তির ফোনটিও ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে দুষ্কৃতিকারী। কিন্তু তিনি সেটিও দেননি।

অস্ত্রধারী লোকটি পরে অন্য ব্যক্তিদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। তার আগে বন্দুক দেখিয়ে ওই সাহসী ব্যক্তিকে ভয় দেখানোর চেষ্টা করে। কিন্তু তাতেও কোনো লাভ হয়নি।

দুষ্কৃতিকারীকে পরে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার নাম কেভিন মুর (৩৭)। আর যে ব্যক্তি বন্দুকের নলের সামনেও মাথা নোয়াননি তিনি টনি টোভার। টনি জানান, তিনি এই বন্দুকবাজদের কাজে বিরক্ত হয়ে গেছেন। কারণ এরা ভাবে হাতে বন্দুক থাকলেই যা খুশি করা সম্ভব।

পুলিশ জানিয়েছে, কেভিন মুরের বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। মোট তিনশ ডলার ও একটি ফোন ছিনতাই করার অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে।

দেখুন সেই ভিডিও

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা