kalerkantho

শনিবার । ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৩০  মে ২০২০। ৬ শাওয়াল ১৪৪১

৯০০ বিঘার জঙ্গল তৈরি করেছেন তিনি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৭ আগস্ট, ২০১৯ ১৬:৩৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৯০০ বিঘার জঙ্গল তৈরি করেছেন তিনি

অ্যামাজনের জঙ্গল দাউদাউ করে জ্বলছে। বিষয়টি নিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছে সারাবিশ্বে। আর উন্নয়নের কথা বলে সারাবিশ্বেই বনভূমি ধ্বংস করা হচ্ছে। ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে অবশ্য নানা প্রচার চলছে গাছ বাঁচানো এবং গাছ লাগানো নিয়ে। 

এদিকে ভারতের মণিপুরের এক ব্যক্তি ১৮ বছর ধরে যত্ন সহকারে তৈরি করে যাচ্ছেন ৯০০ বিঘা জমিতে এক সবুজ বিপ্লব। জানা গেছে, পশ্চিম ইমফলের ৪৫ বছর বয়সী বাসিন্দা মোইরাংথেম লোইয়া নিরলসভাবে গাছ লাগিয়ে যাচ্ছেন। 

বনভূমি ধ্বংসের বিরুদ্ধে এটা যেন তার যুদ্ধ। স্প্রিং অব লাইফ তার অনন্য কীর্তি। পরিবেশ বাঁচাতে এবং দূষণের হাত থেকে মানুষকে বাঁচাতে এক বিশাল কর্মযজ্ঞ চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। 

ছোটবেলায় প্রায় মণিপুরের সেনাপতি জেলার কৌব্রু চূড়ায় অবস্থিত সবুজের আস্তানায় যেতেন লোইয়া। তবে ২০০০ সালে কলেজ শেষ করে যখন আবার ছোটবেলার স্মৃতির টানে ওই জায়গায় ফিরে যান, তখন বড় ধরনের ধাক্কা পান তিনি। সবুজের কোনো চিহ্ন খুঁজে পান না। তখনই সিদ্ধান্ত নেন, প্রকৃতিকে তার গৌরব আবার ফিরিয়ে দেবেন।

এরপর খোঁজা শুরু করেন এমন এক জায়গা, যেখানে গাছ লাগাতে পারবেন। ২০০২ সাল থেকে শুরু। স্থানীয় বাসিন্দারা তাকে নিয়ে যান মারু লাংগোল পাহাড়ের কাছে। সেখানেই শুরু হয় তার পথ চলা। 

মেডিক্যাল রিপ্রেজেন্টেটিভের কাজ ছেড়ে শুরু করেন গাছ লাগানো। দীর্ঘ ছয় বছর ধরে একে একে বাঁশ, ওক, ফিকাস, ম্যাগনোলিয়া, টিক, কাঁঠালের মতো নানা রকম গাছ লাগান তিনি। ২০০৩ সালে তার পাশে এসে দাঁড়ান আরো কয়েকজন বন্ধু। তারা সবাই মিলে তৈরি করেন ওয়াইল্ড লাইফ অ্যান্ড হ্যাবিট্যাট প্রটেকশন সোসাইটি। ওই সংগঠন এখন পুনশিলকের রক্ষণাবেক্ষণ করে থাকে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা