kalerkantho

মশা সম্পর্কে মজার কিছু তথ্য

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ আগস্ট, ২০১৯ ১৭:৫২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মশা সম্পর্কে মজার কিছু তথ্য

বর্তমানে সবচেয়ে আলোচিত বিষয়গুলোর মধ্যে অন্যতম মশা। বিশেষ করে এডিস মশার কবলে পড়ে অকাল মৃত্যুও হয়েছে অনেকের। তার পরেও মশা সম্পর্কে মজার কিছু তথ্য জানলে না হেসে থাকা যায় না।

নারী মশা ভয়ঙ্কর

পুরুষ মশা কেবল একদিন বাঁচে। তবে নারী মশা হতে সাবধান। নারী মশা সচরাচর ছয় থেকে আট সপ্তাহ বেঁচে থাকে। আর পুরুষ মশা একদিনের বেশি বাঁচলেও তাদের পরিস্থিতি একেবারেই নাজুক হয়ে থাকে। তবে নারী মশা ছয় মাস পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে।

উড়ন্ত মশাকে পরাস্ত করতে পারবেন

উড়ন্তু কোনো পাখির সঙ্গে অন্তত পায়ে হেঁটে কিংবা দৌড়ে কখনোই কুলিয়ে উঠতে পারবেন না। তবে চাইলেই কিন্তু মশাকে পরাস্ত করা যায়। কারণ, মশারা খুব দ্রুত গতিতে উড়ে না। সেই সঙ্গে বেশি দূর চলেও যায় না।

সামান্য পানিতেও এরা প্রজনন ঘটায়

মশারা চাইলে সামান্য পানিতেও প্রজনন ঘটাতে পারে। এমনকি টায়ারে কিংবা চায়ের কাপে সামান্য পানি জমলে, সেখানে সন্তান পয়দা করতে ছাড়ে না। আপনি চাইলে পানি জমতে না দিয়ে পরিবেশ শুষ্ক রেখে মশার বংশবিস্তার ঠেকাতে পারেন।

ফড়িং আর মাছ দেখে ভয় পায় মশা

মশার ভয়ে মানুষজন মশারি টাঙিয়ে থাকে তো বটেই, বিভিন্ন ধরনের স্প্রে ও মলম মাখে গায়ে। তবে মশারাও কিন্তু ভয়ে থাকে। অবাক হলেও ঘটনা কিন্তু সত্য। কারণ, মশা ডিম পাড়ে পানিতে। আর সেই ডিম খায় মাছ। অন্যদিকে বাচ্চা মশা ফড়িংয়ের পছন্দের খাবার। সে কারণে ধরে নেওয়া যায়, মাছ আর ফড়িংয়ের কাছ থেকে মশা ভয়ে থাকে।

মশারও একটা ইতিহাস আছে

বিভিন্ন সভ্যতার যেমন ইতিহাস আছে। তেমনি মশারও ইতিহাস আছে। দীর্ঘ আড়াই হাজার বছর ধরে তারা পৃথিবীর বুকে টিকে আছে।

মশার দাঁত নেই

কামড় দেওয়ার জন্য মশার কোনো দাঁত নেই। তবে নিজের শুঁড় ব্যবহার করে তারা কামড় দেয়। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা