kalerkantho

মহাকাশেও অপরাধ! তদন্ত করছে নাসা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক    

২৫ আগস্ট, ২০১৯ ১৫:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মহাকাশেও অপরাধ! তদন্ত করছে নাসা

মহাকাশ থেকে ফেরার পর অ্যানি ম্যাকক্লেইন। ছবি : বিবিসি

আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন (আইএসএস) থেকে সাবেক সঙ্গীর ব্যাংক অ্যাকাউন্টে অনুপ্রবেশের চেষ্টার অভিযোগে এক নভোচারীর বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে নাসা। ধারণা করা হচ্ছে, এটি মহাকাশ থেকে ঘটানো প্রথম অপরাধের ঘটনা।

তবে অভিযুক্ত নভোচারী অ্যানি ম্যাকক্লেইন এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বলে জানিয়েছে দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস। ওই ব্যাংক অ্যাকাউন্টে প্রবেশের চেষ্টার কথা স্বীকার করলেও খারাপ কিছু করার কোনো উদ্দেশ্য তাঁর ছিল না বলে দাবি করছেন তিনি। তিনি জানিয়েছেন, সাবেক সংসারের আর্থিক অবস্থা ঠিকঠাক আছে কি না জানার জন্যই শুধু তিনি অ্যাকাউন্টে ঢোকার চেষ্টা করেছিলেন। পাশাপাশি ওই সংসারে থাকা তাঁর সাবেক সঙ্গীর সন্তানের খরচ জোগানো ও যত্ন নেওয়ার মতো যথেষ্ট অর্থ আছে কি না তাও জানতে চেয়েছিলেন তিনি। বিয়েবিচ্ছেদের আগ পর্যন্ত ওই সন্তানকে একসঙ্গে বড় করেছেন তাঁরা।

কিন্তু তাঁর এসব ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট হতে পারেননি তাঁর সাবেক সঙ্গী সামার ওয়ার্ডেন। ম্যাকক্লেইনের বিরুদ্ধে ফেডারেল ট্রেড কমিশনে অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। কিন্তু ম্যাকক্লেইনের আইনজীবী রাস্টি হার্ডিন জানিয়েছেন, ম্যাকক্লেইন তাঁর বিরুদ্ধে থাকা অভিযোগ জোরালোভাবে অস্বীকার করেছেন।

অ্যানি ম্যাকক্লেইন ও মার্কিন বিমানবাহিনীর গোয়েন্দা কর্মকর্তা সামার ওয়ার্ডেন ২০১৪ সালে বিয়ে করেন। তাঁরা দুজনই নারী। ২০১৮ সালে ম্যাকক্লেইনের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তাঁদের বিয়েবিচ্ছেদ হয়ে যায়। ম্যাকক্লেইনও একজন সেনা পাইলট। ২০১৩ সালে তিনি নাসার হয়ে মহাকাশে যাওয়ার সুযোগ পান।

এদিকে অভিযোগ তদন্ত করতে নাসা দুই পক্ষের সঙ্গেই যোগাযোগ করেছে বলে জানিয়েছে নিউ ইয়র্ক টাইমস। দোষী সাব্যস্ত হলে ম্যাকক্লেইনকে মহাকাশ আইন অনুযায়ী শাস্তি পেতে হবে। মহাকাশ স্টেশনের স্বত্বাধিকারী যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, ইউরোপ, জাপান ও কানাডার নাগরিকদের সংঘটিত অপরাধের সাজা যার যার দেশের আইন অনুযায়ী দেওয়ার নিয়ম রয়েছে। মহাকাশে পর্যটনের সম্ভাবনা ধীরে ধীরে বাস্তবে রূপ নিচ্ছে। তাই সেখানে ঘটা অপরাধের বিচারব্যবস্থারও প্রয়োজনীয়তা তৈরি হয়েছে। সূত্র : বিবিসি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা