kalerkantho

রায় ঘোষণার সময় বিচারক বললেন, পারলে খোজা করার নির্দেশ দিতাম

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ আগস্ট, ২০১৯ ২০:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রায় ঘোষণার সময় বিচারক বললেন, পারলে খোজা করার নির্দেশ দিতাম

যুক্তরাষ্ট্রের ওকলাহোমা রাজ্যের অসংখ্য বাড়িতে গোপনে ক্যামেরা লাগিয়ে ভিডিও ধারণের দায়ে এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে সে দেশের আদালত। রায় ঘোষণার সময় বিচারক বলেন, আইনে থাকলে ওই ব্যক্তিকে খোজা করার নির্দেশ দিতেন।

রায়ান আলদেন নামের ওই ব্যক্তির কম্পিউটার ও মোবাইলে অসংখ্য ভিডিও পাওয়া গেছে। যেগুলো তিনি গোপন ক্যামেরায় ধারণ করেছেন। মানুষের বাড়ি এবং স্কুলের টয়লেটে গোপনে ক্যামেরা লাগিয়ে সেসব ভিডিও ধারণ করেছেন তিনি।

এমনকি মানুষের শোবার ঘরেও কৌশলে প্রবেশ করে ক্যামেরা লাগিয়ে ভিডিও ধারণ করেছেন ওই ব্যক্তি। তার ধারণ করা ভিডিওতে শিশু-কিশোরদের নগ্নভাবে গোসলের দৃশ্যও রয়েছে। 

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী জানান, ওই ব্যক্তি গত বছরের নভেম্বরে আটক হন। তাকে যে সাজাই দেওয়া হোক না কেন বের হয়ে এসে আবারো তার এ ধরনের কাজ করার আশঙ্কা রয়েছে।

জানা গেছে, নারীদের নিম্নাঙ্গের ভিডিও, রেস্টুরেন্টে সঙ্গীর সঙ্গে খুঁনসুটির ঘনিষ্ঠ মুহূর্ত এবং জিমে নারীদের কসরতের ভিডিও ধারণ করেছেন ওই ব্যক্তি। সেসব ভিডিও আবার পর্ন সাইটে পোস্ট করে দিতেন।

ভুক্তভোগী এক তরুণী জানান, তার শৈশব একেবারে নষ্ট হয়ে গেছে ওই ব্যক্তির এ ধরনের কর্মকাণ্ডে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা