kalerkantho

'মেয়েটা যেন শেখ হাসিনার মতো হয়'

এস এম রানা, চট্টগ্রাম   

১৫ আগস্ট, ২০১৯ ১৬:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'মেয়েটা যেন শেখ হাসিনার মতো হয়'

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালো রাত। মুহুর্তের মধ্যে কিছু বিপথগামী সেনা সদস্যের গুলিতে ঝাঁঝরা হয়ে গেল স্বাধীন বাংলার স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শরীর। শুধু কি শেখ মুজিব? সঙ্গে  প্রাণ দিলেন বঙ্গবন্ধু প্রায় পুরো পরিবার। বঙ্গমাতা সহ পুরো পরিবার নিশ্চিহ্ন হয়ে গেল মুহূর্তেই ‌ শুধু প্রাণে বেঁচে যান বঙ্গবন্ধু দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। 

তারপর সব ইতিহাস। একজন শেখ হাসিনা ধরলেন আওয়ামী লীগের হাল। পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে রাষ্ট্র পরিচালনার ভার হাতে তুলে নিলেন।  রাষ্ট্র পরিচালনার পাশাপাশি করলেন পিতা হত্যার বিচার। স্বাধীনতা বিরোধীদের বিচার করলেন অবিচল নেতৃত্বে। 

বঙ্গবন্ধু হত্যার ও স্বাধীনতা বিরোধীদের বিচারে অবিচল থাকা এমন মেয়ে যদি হয় বাংলার ঘরে ঘরে তখন বাংলাদেশ কি আর আজকের অবস্থানে থাকবে? বাংলাদেশকে রুখতে পারবে এমন সাধ্য থাকবে কোন দেশের?

এমন আকুতি ভরা কন্ঠ ফুটে উঠেছে এক মেয়ের জনক এম তারিকুল ইসলামের কণ্ঠে। ব্যবসায়ী তারিকুল ইসলাম এর একটি মাত্র মেয়ে। একমাত্র মেয়ের বাবা হিসেবে তাকে প্রতিবেশীদের নানা কথা শুনতে হয়। 'কি হবে একটি মেয়ে দিয়ে? জন্ম ভিটায় আগুন জ্বালাবে কে?'

প্রতিবেশীদের এমন প্রশ্ন শুনে পদ্ম হয়ে ওঠে বাবার অন্তর। প্রতিবাদ করে তিনি কখনো রেগে যান, আবার কখনো বা মৃদু হেসে দূরে সরে যান। 
আবার ভাবতে থাকেন, এই মেয়েটির যদি হয় শেখ হাসিনার মতো, তাহলে অনেকগুলো সন্তানের কি দরকার? যিনি এক রাতেই পুরো পরিবারকে হারিয়ে পৃথিবীর নিঃসঙ্গতম মানুষ হয়েছেন, তিনি তো শক্ত হস্তে পিতা হত্যার বিচার করেছেন, স্বাধীনতা বিরোধীদের বিচার করেছেন। 

'বাবার কথা' শিরোনামে লেখা কবিতাটি আবৃত্তি করেছেন রাশেদ হাসান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা