kalerkantho

সোমবার। ১৯ আগস্ট ২০১৯। ৪ ভাদ্র ১৪২৬। ১৭ জিলহজ ১৪৪০

ঢেউয়ে ঢেউয়ে সাগরেই বিলীন ‘ভূমিকম্প দ্বীপ’

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ জুলাই, ২০১৯ ১৯:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঢেউয়ে ঢেউয়ে সাগরেই বিলীন ‘ভূমিকম্প দ্বীপ’

২০১৩ সালের দিকে ৭ দশমিক ৭ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প হয়েছিল পাকিস্তানে। সে সময় পাকিস্তানের ৩২০ জন মানুষ মারা যান। সেই সঙ্গে হাজার হাজার মানুষের বসতঘর থাকার অনুপযুক্ত হয়ে যায়। আর তখনই দেশটির মানুষের জন্য অপেক্ষা করছিল আরো একটি বিস্ময়। ভূমিকম্পের ধাক্কা কাটতে না কাটতেই আরো একবার ধাক্কা খেলেন তারা; দেখলেন ভূমিকম্পের পর আরব সাগরে জেগে উঠেছে এক নতুন দ্বীপ। পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশের উপকূলীয় শহর গোয়াদরে এই ঘটনাটি ঘটে। ঘটনার ছয় বছর পর আরব সাগরের দ্বীপটিকে এখন আর খোঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। ঢেউয়ে ঢেউয়ে সাগরেই বিলীন হয়ে গেছে ভূমিকম্প দ্বীপটি।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, দ্বীপটি ছিল অনেকটা ডিম্বাকৃতির, আড়াইশ থেকে তিনশ ফুট দীর্ঘ। পানি থেকে উচ্চতা ৬০ থেকে ৭০ ফুট। দ্বীপের বেশিরভাগটাই কাদামাটি, সঙ্গে ছিল উচুঁনিচু পাথর। দ্বীপটির একপাশে মাটির নিচ থেকে হিস হিস শব্দে গ্যাস বের হতো। 

এদিকে  ভূতাত্ত্বিকরা জানান, মহাদেশীয় ভূখণ্ডগুলোর গতির (কন্টিনেন্টাল ড্রিফট) ফলাফল ছিল ওই দ্বীপ। বেলুচিস্তানের ওই মাকরান উপকূল ভারত-ইউরেশিয়া ভূ-চুত্যির (ফল্ট লাইন) মধ্যে পড়েছে। কয়েক কোটি বছর আগে ভারতীয় ভূখণ্ড সরতে সরতে এসে ইউরেশিয়া (এশিয়া ও ইউরোপ) ভূখণ্ডকে ধাক্কা দিলে এই চ্যুতি তৈরি হয়। এটি দুটি ভূখণ্ডের মিলনস্থল।

সূত্র: লাইভসায়েন্স।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা