kalerkantho

বুধবার । ২১ আগস্ট ২০১৯। ৬ ভাদ্র ১৪২৬। ১৯ জিলহজ ১৪৪০

২৫ বছর গাছের ডালপালা, পাতা খেয়ে বেঁচে আছেন যিনি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ জুন, ২০১৯ ১৪:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



২৫ বছর গাছের ডালপালা, পাতা খেয়ে বেঁচে আছেন যিনি

শুধুমাত্র টাটকা শাকপাতা আর গাছের ডালপালা খেয়ে বেঁচে আছেন পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মাহমুদ বাট(২৫) নামের এক ব্যক্তি। তিনি কখনো অসুস্থ হয়েছেন বলেও শোনা যায়নি। ২৫ বছর বয়স থেকে গাছের ডালপালা আর পাতা খেয়ে জীবন ধারণ করছেন মাহমুদ বাট। 

জানা গেছে,  এক সময়ে কোনো জীবিকা ছিল না পাঞ্জাবের গুজরানওয়ালা জেলা থেকে আসা এই ব্যক্তির। খাদ্যবস্তু কেনার টাকা জোগার করতে না পেরে গাছের ডালপালা আর পাতা খেয়েই দিন কাটাতে শুরু করেন তিনি।

এক সাক্ষাতকারে মাহমুদ বাট বলেন, ‘আমার পরিবার ছিল হতদরিদ্র। আমিও ছিলাম কপর্দকশূন্য। এক সময় এমন দিন এল যে হাতে খাবার কেনার পয়সাটুকুও নেই। তাই ভাবলাম রাস্তায় রাস্তায় ভিক্ষে করার বদলে গাছের পাতা, কাঠ এসব খেয়েই বেঁচে থাকা ভালো, সম্মানজনকও বটে !’ 

তিনি আরো বলেন, ‘আর এখন তো অভ্যাসই হয়ে গেছে’।

তবে এই অদ্ভুত খাদ্যাভ্যাস থেকে বের হতে পারেননি বাট। যদিও এখন তাঁর ট্রান্সপোর্টের ব্যবসা। দিনে প্রায় ৬০০ টাকার মত আয় তার। এখনও খাবারের জন্য তিনি খোঁজেন গাছের ডালপালা, পাতা। খাদ্য তালিকায় তাঁর সবচেয়ে প্রিয় খাবার বট, তালি আর সাক চেইন গাছের ডালপালা। 

জানা গেছে, ব্যবসার মালপত্র এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় নিয়ে যাওয়ার সময় খিদে পেলে গাড়ি থামিয়ে গাছের ডাল, পাতা ছিঁড়ে খানিক চিবিয়ে নেন বাট। এতেই তার খিদে মিটে যায়। তার এমন অদ্ভুত খাদ্যাভ্যাসের জন্য অঞ্চলের সবাই তাঁকে চিনে গেছে। 

মাহমুদের প্রতিবেশী গোলাম মুহম্মদ বলেন ‘ঘাস পাতা খেয়েও তিনি সুস্থ শরীরে কী সুন্দর বেঁচে আছেন ! তাঁকে কখনই হাসপাতালে বা ডাক্তারের কাছে যেতে দেখিনি আমরা। আমাদের কাছে ভীষণই বিস্ময়কর এই ব্যাপারখানা’। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা