kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৮ জুলাই ২০১৯। ৩ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৪ জিলকদ ১৪৪০

পথ ভুলে লোকালয়ে ভয়ঙ্কর চিতা, অতিথির সঙ্গে সেলফি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ জুন, ২০১৯ ১১:৩৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পথ ভুলে লোকালয়ে ভয়ঙ্কর চিতা, অতিথির সঙ্গে সেলফি

সত্যজিৎ রায়ের 'হীরক রাজার দেশে' ছবির কথা মনে আছে? ঘরের ভেতর বাঘমামাকে দেখে কী হাল হয়েছিল গুপির? গানের সুরে রীতিমতো বাঘের হাতে পায়ে ধরে সেখান থেকে প্রাণে বেঁচে ফিরেছিল সে। 

জঙ্গলে হোক বা চিড়িয়াখানায়, চোখের সামনে আস্ত একটি বাঘ এসে দাঁড়ালেই গলা শুকিয়ে যাওয়ার জোগাড় হয়। এমন হিংস্র প্রাণীর সামনে সাধারণত বেশ সাবধানেই থাকেন আমজনতা। কিন্তু জম্মু ও কাশ্মীরের কিশতোয়ার জেলায় একটি চিতাবাঘকে ঘিরে যে কাণ্ড করেছে পথচারীরা- তা ছবির চিত্রনাট্যকেও হার মানায়।

পথ ভুলে কোনওভাবে জঙ্গল থেকে সোজা রাস্তায় এসে পড়েছিল একটি চিতাবাঘ। ছিংগাম গ্রামের ওই  রাস্তাটি দিয়ে সবসময় চলাচল করে মানুষ। মনুষ্য দুনিয়ায় এসে পড়া বাঘটি বেশ শান্তভাবেই রাস্তার ধার দিয়ে হাঁটছিল। কিন্তু পথচারীরা কি আর এমন মওকা সহজে ছেড়ে দেয়?

অনেকেই মোটরসাইকেল  থামিয়ে চিতাবাঘকে ধাওয়া করেন। অনেককে আবার চিতার সামনে হাঁটতে দেখা যায় মোবাইল হাতে। জঙ্গল রাজার সঙ্গে সেলফি তোলাই তাঁদের উদ্দেশ্য। অদ্ভুতভাবে কারো চোখে-মুখে ভয়ের কোনও ছাপ নেই। রাস্তা দিয়ে হাঁটছে চিতা। অথচ তাকে দেখে ভয়ে গা না ঢেকে সেলফি তোলার হিড়িক পড়েছে!

এমন বিরল দৃশ্যই ক্যামেরাবন্দি হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। জানা গেছে, পরে বন বিভাগের কর্মীরা এসে চিতাটিকে সেখান থেকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

বন বিভাগ সূত্র জানায়, চিতাবাঘটি অসুস্থ ছিল। কিশতোয়ারের ট্রমা সেন্টারে এখনও তার চিকিৎসা চলছে। এ কারণে নিরীহ প্রাণীর মতোই মনুষ্যজগতে বিচরণ করছিল সে। 

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা