kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৮ জুলাই ২০১৯। ৩ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৪ জিলকদ ১৪৪০

কলকাতায় নৃশংসভাবে ছয়টি বিড়ালকে হত্যা!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ জুন, ২০১৯ ২১:৩৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কলকাতায় নৃশংসভাবে ছয়টি বিড়ালকে হত্যা!

বাংলার নবজাগরণের কেন্দ্রস্থল ছিল কলকাতা। এই শহর বাংলা তথা ভারতের ধর্মীয় ও জাতিগত বৈচিত্র্যপূর্ণ এক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রও বটে। মাদার তেরেসা, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, সত্যজিৎ রায় এবং সুভাষ চন্দ্র বোসের মত বহু মহান ব্যক্তিত্বদের আবাসস্থল ছিলো এই শহর। এক মানবিক শহর ছিল কলকাতা। তবে বর্তমানে এ শহরে দেখেছে হাসপাতালের মধ্যে ছোটো ছোট কুকুর ছানাদের নৃশংসভাবে পিটিয়ে মারার দৃশ্য, এ শহর দেখেছে পশু-পাখিদের কত দ্বিধাহীনভাবে হত্যা করা যায়। এ শহর ধীরেধীরে নৃশংস হয় ওঠছে আরও। বেরিয়ে আসেছে অমানবিক দাঁত-নখ। 

কলকাতা শহর সেই নৃশংসতারই প্রমাণ দিল আবারো। উত্তর কলকাতার ডাফ স্ট্রিটে বিষ খাইয়ে হত্যা করা হল সাতটি বিড়ালকে। যার মধ্যে রয়েছে ছয়টি বিড়ালের বাচ্চাসহ তাদরে মা। এই পৈশাচিক ঘটনার নেপথ্যে অভিযোগের আঙুল উঠেছে স্থানীয় বাসিন্দাদের বিরুদ্ধেই।

বিড়াল হত্যার ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাতে। এদিন সকালে স্থানীয় বাসিন্দা ভোলানাথ সাউ বিড়ালগুলোর মৃতদেহ দেখতে পেয়ে খবর দেন পৌরসভার কর্মীদের। পরে তারা এসে মৃতদেহগুলো নিয়ে যান।

কিন্তু স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে, এভাবে এত নিরীহ বিড়ালকে মেরে ফেলা যায় কি? মানুষ পারেই বা কীকরে এতটা অমানুষ হয়ে উঠতে?

সূত্র: এই সময়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা