kalerkantho

মঙ্গলবার। ১৬ জুলাই ২০১৯। ১ শ্রাবণ ১৪২৬। ১২ জিলকদ ১৪৪০

শিক্ষিকা কৃষ্ণকলির আত্মহত্যার কারণ এখনো অজানা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ জুন, ২০১৯ ১৭:৩৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শিক্ষিকা কৃষ্ণকলির আত্মহত্যার কারণ এখনো অজানা

প্রতিদিন সকালে গাড়ি চালিয়ে যেতেন তিনি। বিকেল গড়িয়ে যাওয়ার পর ফিরতেন বাড়ি। পাড়ার সবাই শুনেছেন কলকাতার কলেজে পড়ান তিনি। পারিবারিক কোনো অস্বাভাবিকতাও লক্ষ করেননি কখনো। মাত্র তিন মাসের পড়শি সম্পর্কে তাই বাড়তি কোনো কৌতুহলও ছিল না পাড়ার কারো।

মঙ্গলবার কৃষ্ণকলি চট্টোপাধ্যায় ভট্টাচার্যের (৩৯) মরদেহ উদ্ধারের খবর শোনার পর প্রাথমিকভাবে হতবাক হয়ে যান ভারতের মধ্যমগ্রামের পূর্ব বঙ্কিম পল্লির বাসিন্দারা। 

তারা জানতে পারেন, বাড়িতেই মিলেছে কলেজ শিক্ষিকার ঝুলন্ত মরদেহ। পুলিশ বলছে, ওই শিক্ষিকার ঘর থেকে একটি সুইসাইড নোটও উদ্ধার করা হয়েছে। তাতে নিজের মৃত্যুর জন্য কাউকে দায়ী করেননি তিনি।

কলকাতার ভিক্টোরিয়া কলেজে দর্শনের শিক্ষিকা ছিলেন কৃষ্ণকলি। বছর পাঁচেক আগে কলেজের চাকরিতে যোগ দেন। গত ডিসেম্বর মাসে বিয়ে হয়েছিল তার। 

পুলিশ বলছে, আগে বেলঘরিয়ায় থাকতেন। মাস তিনেক আগে মধ্যমগ্রামের পূর্ব বঙ্কিম পল্লিতে বাড়ি ভাড়া নেন। কলেজ সূত্রে জানা গেছে, সোমবারও কলেজে গিয়েছিলেন তিনি। পরীক্ষার গার্ড দিয়ে ফিরে আসেন। সেদিন কলেজের কেউ তার মধ্যে কোনো অস্বাভাবিকতা লক্ষ করেননি বলে জানিয়েছেন তার সহকর্মীরা। কৃষ্ণকলির এমন পরিণতিতে হতবাক সবাই।

কেন আত্মহত্যা করলেন দর্শনের শিক্ষিকা, তা এখনো অজানা। স্বভাবে খুবই হাসিখুশি ছিলেন বলে জানিয়েছেন কৃষ্ণকলির সহকর্মীরা। তার পারিবারিক কোনো সমস্যা ছিল বলেও জানা নেই তাদের। তার পরেও কোন বিষাদে নিজের জীবনের ইতি টানলেন তিনি, সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা