kalerkantho

বুধবার । ২৪ জুলাই ২০১৯। ৯ শ্রাবণ ১৪২৬। ২০ জিলকদ ১৪৪০

ঘুষ নিয়ে ভাইরাল হলো মালয়েশীয় পুলিশ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ জুন, ২০১৯ ১৮:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঘুষ নিয়ে ভাইরাল হলো মালয়েশীয় পুলিশ

মালয়েশিয়ার সেলাঙ্গার স্টেটের একটি শহর পেতালিং জায়া। পেতালিং-এর একটি শহরতলী কেলানা জায়া। সেখানকার একটি শপিং মলের দোকান থেকে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার এক কর্মকর্তার অবৈধ অর্থ গ্রহণ করছেন- এমন ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

১৫ সেকেন্ডের ওই ভিডিও-তে দেখা যায়, দোকানের মালিক অথবা কর্মচারী টাকার একটি বান্ডিল হস্তান্তর করছেন ইউনিফর্ম পরা আইন প্রয়োগকারী সংস্থার এক কর্মকর্তাকে।

সোমবার মালয়েশিয়ার দুর্নীতি দমন কমিশন (এমএসিসি) অফিসে আসেন পেতালিং জায়া সিটি কাউন্সিলের (এমবিপিজে) কাউন্সিলর সিন উন। এ সময় তিনি বলেন, 'অনেক ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের মালিক এই ব্যাপারে আমার কাছে অভিযোগ করেছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত আমাকে কেউ কোনও প্রমাণ দিতে পারেননি।' 

উন বলেন, ভিডিওটি-তে দেখানো মুখটি স্পষ্টই আইন প্রয়োগকারী সংস্থার একজন কর্মকর্তার- এটি সত্য।

দেশটির গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন সূত্রে জানা গেছে, এক সপ্তাহ আগে নিয়মিত অভিযান চালানোর আগের দিন ওই দোকানে যান আইন প্রয়োগকারী সংস্থার ওই কর্মকর্তা। এ সময় দোকানটিকে যাতে জরিমানা করা না হয়, সেজন্য ওই কর্মকর্তাকে টাকার বান্ডিলটি দেন দোকান মালিক।

সেলাঙ্গার স্টেটের সাঙ্গাই পেলেক শহরের একজন পার্লামেন্ট মেম্বার রনি লিউ বলেন, 'খোঁজ নিয়ে জানা গেছে অভিযানের আগের দিন ওই কর্মকর্তা দোকানে গিয়েছিলেন জরিমানা না করার পরিবর্তে অবৈধ অর্থ গ্রহণ করতে।' তিনি বলেন, 'যারা মালয়েশীয় মুদ্রায়  সর্বোচ্চ এক হাজার রিঙ্গিত পর্যন্ত দিয়েছিলেন তাদেরকে জরিমানা করা হয়নি।' 

লিউ বলেন, 'এটি অত্যন্ত গুরুতর ঘটনা এবং সেলাঙ্গারে এটি প্রথম ঘটেনি। এর আগেও এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে। তিনি বলেন, মাত্র চারটি রেস্তোঁরায় অভিযান চালানো হয়েছিল। বাকি দোকান মালিকরা অর্থ প্রদান করে জরিমানা থেকে রক্ষা পেয়েছিলেন। বিষয়টি পেতালিং জায়ার মেয়রকে জানানো হয়েছে। 

সূত্র : দ্য স্টার 

মন্তব্য