kalerkantho

মঙ্গলবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১২ রবিউস সানি     

জাগুয়ার, লেপার্ড, চিতাবাঘ : পার্থক্য করবেন যেভাবে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ জুন, ২০১৯ ২১:৩৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



জাগুয়ার, লেপার্ড, চিতাবাঘ : পার্থক্য করবেন যেভাবে

দেখতে একই রকম হলেও জাগুয়ার, লেপার্ড আর চিতাবাঘের রয়েছে কিছু পার্থক্য। তিনটি প্রাণীর মাঝে ঘোল পাকিয়ে ফেলা অসম্ভব কিছু না। মজার ব্যাপার হলো বাংলায় জাগুয়ার (Jaguar), লেপার্ড (Leopard) আর চিতাবাঘকে (Cheetah) বলা হয় চিতা/চিতাবাঘ। কিন্তু আদতে এরা সবাই চিতাবাঘ নয়। বেশ কিছু ব্যাপার দেখে এদের আলাদাভাবে চেনা যায়।

তিনটি প্রাণিরই গায়ের লোমে কালো কালো ছোপ রয়েছে। আর এই ছোপ দেখেই এদের আলাদা করা যায় খুব সহজেই। তাছাড়া ও এদের শরীরের আকৃতি দেখেও পার্থক্য করা যায়। কিংবা এদের মুখমণ্ডল দেখেও আলাদা করা যায়।

জাগুয়ার (Jaguar)

মাথা ও মুখমণ্ডল : জাগুয়ারের মাথা বেশ বড় ও প্রশস্ত। অধিকাংশ জাগুয়ারদেরই নাকের ডগায় অস্পষ্ট সাদা অর্ধ-বৃত্তের মত দাগ দেখা যায়। লেপার্ডের মাথা মধ্যম আকৃতির ও স্লিম। মাজল ছুঁচালো। অন্যদিকে চিতার মাথা ছোটখাটো। নাকের দুই পাশে চোখের নিচ হতে কালো টিয়ার মার্ক (Tear mark) রয়েছে যা লেপার্ড কিংবা জাগুয়ারের নেই।

লেপার্ড (Leopard)

লোমের কালো ছোপ : জাগুয়ার ও লেপার্ড উভয়ের গায়ের কালো ছোপগুলো দেখতে গোলাপের পাপড়ির মত। এদের তাই রোজেট ও বলা হয়। কিন্তু লেপার্ড এর রোজেটের পাপড়িগুলো পরস্পর অনেকটা লাগানো ও গোল রিং এর মত হয়ে থাকে। অপরদিকে জাগুয়ারের রোজেটের পাপড়িগুলো একটু ফাঁকা ফাঁকা। কিন্তু এটাও সুনির্দিষ্ট পার্থক্য নয়। আরেকটু ভালোভাবে খেয়াল করলে দেখা যাবে জাগুয়ারের রোজেটে কিছু কালো ডট বা বিন্দু রয়েছে যাদের কে সেন্ট্রাল স্পট বা ইন্টার্নাল ডট ও বলা যায়। এগুলো লেপার্ড এ থাকে না। এটা দেখে তো লেপার্ড ও জাগুয়ার আলাদা করলাম। আর চিতার গায়ে এমন রোজেট থাকে না। যা থাকে তা হলো সব ই কালো ডট বা কালো বিন্দু। 

চিতা (Cheetah)

দেহের আকৃতি : জাগুয়ারের দেহ বিশাল ও ভারী। পা গুলো ছোট ছোট। লেজ ও অপেক্ষাকৃত খাটো। চোয়াল ও মাথা আকারে বড়। অন্যদিকে লেপার্ড এর দেহ লম্বাকৃতির ও স্লিম। পা গুলো লম্বা লম্বা। মাথা ও চোয়াল মধ্যম আকৃতির। লেজ লম্বা যা এদের গাছে চড়ার সময় ব্যালেন্স রাখতে সাহায্য করে। অপরদিকে চিতার দেহ লম্বা ও বেশ পেশল। পাগুলো ও অনেক পেশল যার কারণে এরা উচ্চগতিতে দৌড়াতে পারে। মাথা ছোটখাটো। লেজ লম্বা ও পেট বেশ রোগা। 

বৈজ্ঞানিক নাম : জাগুয়ার Panthera onca (Linnaeus, 1758 ) ও লেপার্ড Panthera pardus (Linnaeus, 1758) আর চিতার Acinonyx jubatus (Schreber, 1775)।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা