kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

চুল কাটার এখনই সময়

সাম্প্রতিক সময়ে ট্রেন্ডের প্রভাবে পাল্টে গেছে কেশের বেশ। তো অপেক্ষা কিসের? এবার ঈদে আরামদায়ক, সাহসী ও স্টাইলিশ কাটে কেটে নিন চুল। পাল্টে ফেলুন পুরনো লুক। লিখেছেন পারসোনার পরিচালক নুজহাত খান

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৭ মে, ২০১৯ ১১:০৩ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



চুল কাটার এখনই সময়

লং লেয়ার

মেয়েদের জন্য

মেয়েদের হেয়ারকাট ট্রেন্ডে এ বছর এসেছে দারুণ সব পরিবর্তন। জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছে চোয়ালের কাছে ঝুলে থাকা জলাইন বা মিডলেন্থ বব। গেল বছরের মতো এবারও জনপ্রিয়তা ধরে রাখবে ব্লান্ট জলাইন বব। কিন্তু কাটটা এমনভাবে কাটা চাই, যেন কানের পেছনে গুঁজে দিলে তা এ লাইন(সমান) ববের মতো দেখায়। পাতলা চুল ঘন দেখাতে দারুণ হেয়ার কাট এটি। সোজা চুলে সবচেয়ে ভালো দেখায়, তবে ঢেউ খেলানো বা কোঁকড়া চুলেও কেটে নেওয়া যাবে অনায়াসে। মানিয়ে যায় সব ধরনের মুখের আদলের সঙ্গে। সঙ্গে আরেকটু আধুনিক ও স্বতন্ত্র লুক যোগ করতে চাইলে ববের সঙ্গে জুড়ে দিতে পারেন ব্যাঙস কাট। চেহারায় বাড়তি মাত্রা যোগ হবে। কার্লি চুল হলে ব্যাঙস খুব বেশি ছোট করা যাবে না। তবে যাঁদের চুল সোজা, তাঁরা দৈর্ঘ্য নিয়ে পছন্দমতো নিরীক্ষা করতে পারেন। চুল ছোট রাখতে স্বচ্ছন্দ হলে কেটে নিতে পারেন পিক্সি কাটে। নব্বইয়ের দশকের জনপ্রিয় পিক্সি আবার ফিরেছে এ বছর। এই কাটের বিশেষত্ব হচ্ছে দুই পাশে ছোট রেখে মাথার ওপরের চুল চপি লেয়ারে কেটে নেওয়া হয়। পিক্সির সঙ্গে অ্যাসিমেট্রিক্যাল আন্ডার কাটেও চুল কেটে নেওয়া যেতে পারে। বড় চুলের ট্রেন্ডি হেয়ার স্টাইল চাইলে রয়েছে সত্তর দশকের আরেক হেয়ার স্টাইল শ্যাগ। তবে এবার নতুন চমক নিয়ে, ব্লান্ট ব্যাঙস সমেত। কলার বোন পর্যন্ত লম্বা চুল আর আইব্রো ছোঁয়া ব্যাঙস এর বিশেষত্ব। চুল আরো বড় রাখতে চাইলে এ বছরের ট্রেন্ড লং হুইস্পি লেয়ার। সোজা, ঢেউ খেলানো বা কোঁকড়া—সব ধরনের চুলে কেটে নেওয়া যাবে অনায়াসেই। এ ছাড়া বিভিন্ন স্টাইলের ফ্রিঞ্জও থাকছে ট্রেন্ডে। বেবি, কার্টেন, বারডট হুইস্পির মতো ফ্রিঞ্জগুলো  চুলে জুড়ে দেওয়ার ট্রেন্ড থাকবে বছরজুড়েই। আর যাঁরা চুল রাঙাতে চান—বেছে নিতে পারেন লাইলাক কিংবা রিচ কপারের শেডগুলো। অ্যাশ সিলভার, স্ট্রবেরি হানি, মাশরুম ব্রাউনও কিন্তু করা যাবে নিশ্চিন্তে।


জলাইন বব
 

মিডলেন্থ বব
 

পিক্সি

ছেলেদের জন্য

ছেলেদের চুলের ট্রেন্ডেও এসেছে পরিবর্তন। জেল দেওয়া পরিপাটি হেয়ার স্টাইলের জনপ্রিয়তায় কিছুটা ভাটা পড়েছে এবার। ফেড হেয়ারস্টাইলের জায়গা দখল করে নিয়েছে টেপারড স্টাইল। জনপ্রিয়তা বেড়েছে শর্ট হেয়ার স্টাইলেরও। স্পাইক স্টাইল, টেক্সচারড ক্রপ ছাড়াও শর্ট মেসি লুক থাকবে ট্রেন্ডে। শেভড হেয়ারলাইন, মডার্ন মুলেট আর মোহকও কিন্তু বাদ পড়ছে না তালিকা থেকে। যাঁরা চুল ছোট রাখতে চান, তাঁরা অনায়াসেই বেছে নিতে পারেন ক্লিন কাটের আলট্রা শর্ট টেক্সচারড হেয়ার। চাইলে ফ্রিঞ্জ জুড়ে নিতে পারেন সঙ্গে। পাশে ছোট করে ছাঁটা লুজ পম্প স্টাইলও দারুণ দেখাবে। যাঁদের চুল কার্লি, তাঁরা টেক্সচারড ক্রপ স্টাইলের সঙ্গে ড্রপ ফেড করে চুল কেটে নিতে পারেন। চমক দিতে পারেন শেভড লাইন যোগ করে।

স্পাইক আবার ফিরেছে ট্রেন্ডে। ফাইন থেকে ফুল স্পাইক, স্পাইকি কুইফ আর ফেডেড স্পাইক থাকছে তালিকায়। ক্রপের সঙ্গে যোগ হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের ব্যাঙস। লেয়ারড ব্লান্ট, ডায়াগনাল, জ্যাগডের মতো ব্যাঙস রয়েছে জনপ্রিয়তার শীর্ষে। যাঁদের চুল মাঝারি থেকে লম্বা, তাঁরা কেটে নিতে পারেন মুলেট আর মোহক। মেসি ভাব ছাড়াও এতে যোগ করে নিন টেম্পল ফেড, টেপারড সাইড বা লং সাইড ফ্রিঞ্জ। স্লিক ব্যাক স্টাইলে টেনে আঁচড়ে রাখলে দারুণ দেখাবে। সঙ্গে যদি টাসলড কিংবা মেসি টেক্সচার করে নেওয়া যায়, তাহলে তো কথাই নেই।

ফেড কাট

টেপারড
 

লং সাইড ফ্রিঞ্জ

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা