kalerkantho

মঙ্গলবার। ১৮ জুন ২০১৯। ৪ আষাঢ় ১৪২৬। ১৪ শাওয়াল ১৪৪০

ভারতের গাভী বিত্তান্ত! ধর্ষক রাজকুমার বললেন, তিনি মাতাল ছিলেন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ মে, ২০১৯ ১৫:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতের গাভী বিত্তান্ত! ধর্ষক রাজকুমার বললেন, তিনি মাতাল ছিলেন

ভারতের উত্তরপ্রদেশে পাঁচ গরু ধর্ষণের ঘটনায় সম্প্রতি গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্ত রাজ কুমারকে (২৭)। সিসি টিভির ক্যামেরায় ধারণ করা ফুটেজ দেখে পুলিশ ওই শ্রমিককে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারের পর রাজকুমার বলছেন, তিনি ঘটনার সময় মাতাল ছিলেন।

উত্তরপ্রদেশের ফৈজাবাদের অযোধ্যার একটি গোশালায় এ ঘটনা ঘটে। 

গোশালাটির কয়েকজন কর্মী দাবি করেন, তারা সিসিটিভির ফুটেজে এ ভয়াবহ বিকৃতরুচির কাজটি করতে দেখেন রাজকুমারকে। পরে তাকে ধরতে ফাঁদ পাতা হয়। গত সপ্তায় আবারও একই কাজের চেষ্টা করেন তিনি। এ সময় হাতেনাতে ধরা হয় তাকে। এরপর বেধড়ক মারধর করে পুলিশে দেওয়া হয় তাকে।

উত্তর প্রদেশের অযোধ্যা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বলেন, রাজ কুমারের বিরুদ্ধে পশুর প্রতি  নিষ্ঠুর নির্যাতনের অভিযোগে রয়েছে। তিনি বলেন, রাজকুমারের দাবি তিনি ঘটনার সময় মাতাল অবস্থায় ছিলেন এবং ওই ঘটনা সম্পর্কে তার কিছুই মনে নেই।

পুলিশ পরিদর্শক জগদীশ উপাধ্যায় বলেন, 'অভিযুক্ত রাজকুমার চুক্তিভিত্তিক শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন।' তিনি বলেন, 'যখন তাকে পুলিশ স্টেশনে আনা হয় তখন তিনি মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন।'

জগদীশ আরও বলেন, গোশালার কর্মীদের দাবি অনুযায়ী তারা রাজকুমারকে সেখানকার পাঁচটি গরুর সঙ্গে 'অস্বাভাবিক যৌনকাজে' লিপ্ত হতে দেখেছে। এরপর তাকে ধরার জন্য ফাঁদ পাতে ওই কর্মীরা। তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬ ও ৫১১ ধারায় পশু নির্যাতনের মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

স্থানীয় এক পুরোহিত রাম দাশ বলেন, সিসিটিভি'র ফুটেজে দেখা গেছে, রাজকুমার একটির পর একটি গরুর সঙ্গে এই বিকৃতরুচির কাজে লিপ্ত হচ্ছে। এরপর আমরা তাকে আটক করি এবং পুলিশে দেই।'

ভারতে হিন্দু ধর্মীয় রীতিতে গরুকে পবিত্র আসনে বিবেচনা করা হয়। গরু হত্যা কিংবা পশুটির ওপর কোনও ধরনের নির্যাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ভেতর তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃ্ষ্টি করে। 

সূত্র : স্পুটনিক নিউজ

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা