kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২০ জুন ২০১৯। ৬ আষাঢ় ১৪২৬। ১৬ শাওয়াল ১৪৪০

ইন্টারনেটের দাম বেশি দুবাইতে, জামার দাম রিয়াদে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ মে, ২০১৯ ১৭:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইন্টারনেটের দাম বেশি দুবাইতে, জামার দাম রিয়াদে

ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রে বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল নগরী দুবাই। এই নগরীর বাসিন্দাদের বিশ্বে সবচেয়ে বেশি দামে ইন্টারনেট নিতে হয়। আর বাসিন্দাদের গড় মাসিক বেতন বিবেচনায় র‍্যাঙ্কিংয়ে দেশটি ১৪তম এবং ব্যয়ের দিক দিয়ে ১১তম।

ডয়েচে ব্যাংক প্রকাশিত জীবনযাত্রার মান সংক্রান্ত এক জরিপে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

ব্যাংকটির বার্ষিক জরিপে স্থান পায় বিশ্বের ৫৫টি নগরীর জীবনযাত্রার মান এবং বিশ্বব্যাপী পণ্যের মূল্য। জরিপে এ বছর মধ্যপ্রাচ্য এবং উত্তর আফ্রিকার থেকে বিশ্বের আর্থিক বাজারের সঙ্গে রিয়াদ এবং কায়রোকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

বাড়িভাড়া মেটানোর পর মাসে বেতনের কী পরিমাণ অর্থ হাতে থাকে- তা বিবেচনায় প্রথমবারের মতো শীর্ষে উঠে এসেছে সান ফ্রান্সিসকো। অর্থাৎ এই শহরে মানুষের হাতে থাকে বেশি অর্থ। এর আগে গত আট বছর ধরে এই স্থানে ছিল জুরিখ।

উল্লেখিত দুই বিষয় বিবেচনায় গত পাঁচ বছরে যুক্তরাষ্ট্রের এই শহরটি ৭ এবং ২১তম অবস্থানে ছিল।  দেশটিতে প্রযুক্তি খাতের দ্রুত বৃদ্ধির কারণে মূলত এই অবস্থানে পৌঁছেছে শহরটি। এ ছাড়া ডলারের মূল্য বৃদ্ধিও এ ক্ষেত্রে ভূমিকা রেখেছে। গত এক বছরেরও বেশি সময় ধরে অন্যান্য মূদ্রার তুলনায় ডলারের অবস্থান শক্তিশালী।

অস্ট্রেলিয়া ও ইউরোপের শহরগুলোকে হারিয়ে চাকরিতে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বেতন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক, বোস্টন এবং শিকাগো শহরে। 

যদিও পণ্য এবং পরিষেবার জন্য সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর জুরিখ। তবে মানুষের জীবনযাত্রার মান উন্নত এই শহরেই। এই দিক বিবেচনায় দুবাইয়ের অবস্থান ১৭তম, রিয়াদ ২৬তম এবং কায়রো ৪৯তম।

আটটি বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে জীবনযাত্রার মান নির্ধারণে প্রতিবছর জরিপ চালায় ডয়েচে ব্যাংক। এগুলো হলো ক্রয় ক্ষমতা, নিরাপত্তা, স্বাস্থ্যসেবা, জীবনযাত্রার খরচ, সম্পত্তি মূল্য ও আয়ের অনুপাত, যাতায়াত সময়, দূষণ এবং জলবায়ু অন্তর্ভুক্ত।

মানুষের নিরাপত্তা প্রদানে শীর্ষে রয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। এ ছাড়া দেশটি সম্পত্তি ক্রয় ক্ষমতা অর্থাৎ সম্পত্তির মূল্য ও আয়ের অনুপাতে তৃতীয় এবং বিদ্যুৎ ক্রয়ে চতুর্থ, স্বাস্থ্য সুবিধায় ৩৭তম অবস্থানে। আর একেবারে পেছনে রয়েছে জলবায়ু সুবিধায়।

সূত্র : দ্য ন্যাশনাল 

মন্তব্য