kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ মে ২০১৯। ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৫ রমজান ১৪৪০

ভেষজ ‘ভায়াগ্রা’ খেয়ে রক্তচাপ ২৮০-তে! মরছিলেন প্রায় এক মার্কিনি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ মে, ২০১৯ ১৭:৪৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভেষজ ‘ভায়াগ্রা’ খেয়ে রক্তচাপ ২৮০-তে! মরছিলেন প্রায় এক মার্কিনি

যুক্তরাষ্ট্রের এক ব্যক্তি ভেষজ যৌনশক্তি বর্ধক ওষুধ খেয়ে প্রায় মরতে বসেছিলেন। তার রক্তচাপ অতিবিপজ্জনকভাবে বেড়ে গিয়েছিলো। তার রক্তচাপ ২৮০ তে উঠে গিয়েছিলো। যা তার মৃত্যুও ডেকে আনতে পারতো।

৪৯ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি তার অফিসে থাকা অবস্থায় হঠাৎই অফিসের ফার্নিচারগুলো ধরে নাড়ানো শুরু করেন। তিনি তার বুকে একধরনের তীব্র অস্থিরতা ও উত্তেজনা বোধ করছিলেন। সঙ্গে ছিলো মাথা ঘোরা এবং উদ্বেগ।

এসময় তিনি তার কর্মস্থলের নার্সের সঙ্গে যোগাযোগ করলে নার্স তার রক্তচাপ পরীক্ষা করে আঁতকে ওঠেন। তার রক্তচাপ ছিলো ২৮০/১৬০! যা জরুরি ভিত্তিতে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় মাত্রার চেয়েও বেশি! কারো রক্তচাপ ১৮০/১২০ হলেই ডাক্তাররা তাকে জরুরি ভিত্তিতে চিকিৎসা নিতে বলেন। স্বাভাবিক রক্তচাপ হলো ১২০/৮০ এর নিচে।

ওই ব্যক্তির রক্তচাপের এমন উচ্চ মাত্রা দেখে তাকে দ্রুতই হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যান ডাক্তাররা। ডাক্তাররা তার রক্তচাপ কমানোর জন্য তাকে দু দুটো ওষুধ দেন। কিন্তু কোনোটাই কাজ করছিলো না। এবং তার রক্তচাপ ২১০/১২৫ এর নিচে নামছিলো না।

প্রথমে ওই ব্যক্তি ডাক্তরাদের সঙ্গে সত্য কথা বলেননি। তিনি কোনো ধরনের তামাক, ক্যাফেইন, উত্তেজক উপাদান বা মাদক নেওয়ার কথা অস্বীকার করেন। তবে অনেক জিজ্ঞাসাবাদের পর অবশেষে তিনি স্বীকার করেন যে তিনি তার যৌনশক্তি বাড়ানোর জন্য প্রতিদিন একবার বা দুবার করে ভেষজ ভায়াগ্রা জাতীয় ওষুধ খেতেন।

ডাক্তাররা ওষুধটি পরীক্ষা করে দেখতে পান যে, এতে রয়েছে ‘ইয়োহিমবাইন’ নামের একটি উপাদান। যা পশ্চিম আফ্রিকার ‘পৌসিনিস্টালিয়া ইয়োহিমবে’ নামের একটি গাছের বাকল থেকে তৈরি হয়। এই উপাদানটি এক সময় যৌনশক্তিহীনতার ওষুধ হিসেবেও ব্যবহৃত হতো। কিন্তু পরে ডাক্তাররা ওষুধটি ব্যবহারে নিষেধ করেন।

ওষুধটি সেবনে হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যুও হতে পারে।

ওষুধটি সেবনে ওই ব্যক্তির রক্তচাপ অনেক বিপজ্জনকভাবে বেড়ে গেলেও ভাগ্যের জোরে তিনি বেঁচে গেছেন। তার হার্ট অ্যাটাক হয়নি। ডাক্তাররা অবশেষ তার রক্তচাপ কমানোর জন্য তার দেহে নাইট্রোপ্রুসাইড নামের একটি ওষুধ প্রয়োগ করে আগ্রাসী চিকিৎসা চালান। এতে তার রক্তচাপ কমে আসতে থাকে। হাসপাতাল ছাড়ার সময় তার রক্তচাপ ১৫২/৭৬-এ নেমে আসে।

সূত্র: লাইভ সায়েন্স

মন্তব্য