kalerkantho

শনিবার । ২৫ মে ২০১৯। ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৯ রমজান ১৪৪০

‌এইচআইভি নিরাময়ে পাদ্রি বিক্রি করছেন বিষাক্ত রাসায়নিক!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ এপ্রিল, ২০১৯ ১৯:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‌এইচআইভি নিরাময়ে পাদ্রি বিক্রি করছেন বিষাক্ত রাসায়নিক!

এইচআইভি ও অটিজমের ৯৫ শতাংশ নিরাময় হবে বিষাক্ত ক্লোরিন ডাই অক্সাইড পান করলে! বিস্ময়ে চোখ কপালে উঠলেও এমনটিই প্রচার করা হচ্ছে একটি তথাকথিক গির্জার পক্ষ থেকে। ৪৫০ ডলার থেকে ৮০০ ডলার দিয়ে প্রতিষ্ঠানের সদস্য হয়ে এই 'ব্লিচ' পান করার কথা বলা হচ্ছে আক্রান্তদের।

যুক্তরাষ্ট্রের খোদ ওয়াশিংটনেই এই ঘটনা ঘটছে। প্রচারাভিযানের অংশ হিসেবে ওয়াশিংটনের লেভেনওয়ার্থে গত শনিবার একটি সেমিনারের আয়োজন করা হয়। জেনেসিস ২ চার্চ অব হেলথ অ্যান্ড হিলিং নামের একটি ধর্মীয় সংগঠন আয়োজিত ওই সেমিনারে ক্ষতিকর বিষাক্ত রাসায়নিকটির তথাকথিত গুণাগুণ তুলে ধরা হয়।

সেমিনারে আসা দম্পতিদের প্রত্যেককে সংগঠনের পক্ষ থেকে এক বছরের জন্য প্রতিষ্ঠানের সদস্য হওয়ার আহ্বান জানানো হয়। এ জন্য প্রত্যেককে দিতে হবে ৪৫০ এবং ৮০০ ডলার। তাহলে সদস্যপ্রাপ্তরা পাবেন 'স্যাক্রামেন্টস' নামে পরিচিত ব্লিচগুলো।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, মিরাকল মিনারেল সাপ্লিমেন্ট বা এমএমএস নামের ওই ব্লিচে রয়েছে বিষাক্ত ক্লোরিন ডাই অক্সাইড। এটি একটি শক্তিশালী ব্লিচ যা ব্যবহার করা হয় টেক্সটাইলে। ব্লিচটি যুক্তরাষ্ট্রসহ অনেক দেশে মানুষের সেবনের জন্য নিষিদ্ধ।

২০১০ সালে ইউএস ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) ক্লোরিন ডাই অক্সাইড সম্পর্কে জনসাধারণের কাছে সতর্কতা জারি করে। বলা হয়, ক্লোরিন ডাই অক্সাইড বমি বমি ভাব, বমি, ডায়রিয়া এবং তীব্র পানি শূন্যতার কারণ হতে পারে।

মার্ক গ্রেনন নামে একজন স্বঘোষিত পাদ্রি সেমিনারে হাজির হওয়ার জন্য একটি ফেসবুক পেইজে মানুষকে আমন্ত্রণ জানান।

গ্রুপের ওয়েবসাইটে শেয়ার করা একটি ভিডিওতে গ্রেনন দাবি করেন, 'স্যাক্রামেন্ট প্রোটোকল'  বিশ্বের ম্যালেরিয়া, ইবোলা, ক্যান্সার, ডায়াবেটিস, অটিজম, এইচআইভি এবং একাধিক ‌এসক্লেরোসিসসহ বিশ্বের ৯৫ শতাংশ অসুস্থতা নির্মূল করতে পারে।

এ ছাড়া ১৫ ডলার দিয়ে 'স্যাক্রামেন্টাল ক্লিনসিং ওয়াটার' নামে সোডিয়াম ক্লোরাইটের 4oz বোতল বিক্রির পক্ষে প্রচার চালানো হচ্ছে। এর সঙ্গে সাইট্রিক অ্যাসিড মিশিয়ে সেবন করার পরামর্শও দেওয়া হচ্ছে সেবনকারীদের। 

সূত্র: ইন্ডিপেনডেন্ট 

মন্তব্য