kalerkantho

রবিবার । ২৬ মে ২০১৯। ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২০ রমজান ১৪৪০

হকার্স ও হলিডে মার্কেট

বাস্তবে কত দূর?

আশ্বাসে পেরিয়েছে দীর্ঘ সময়

শাখাওয়াত হোসাইন    

২০ এপ্রিল, ২০১৯ ১১:৫৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাস্তবে কত দূর?

ফাইল ছবি

কেনাকাটার জন্য স্বল্প আয়ের মানুষের ভরসা ফুটপাত। অল্প পুঁজি বিনিয়োগ করে জীবিকা নির্বাহের উপায় হিসেবে ফুটপাতে ব্যবসাকে বেছে নেয় হকাররাও। কিন্তু পুনর্বাসনের ব্যবস্থা না করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ফুটপাত থেকে হঠাৎ হকার উচ্ছেদ করায় বিপাকে পড়েছে ক্রেতা-বিক্রেতা দুপক্ষই। হলিডে মার্কেট ও দোকান বরাদ্দের মাধ্যমে হকারদের পুনর্বাসনে ঢাকার ফুটপাত স্থায়ীভাবে উন্মুক্ত রাখতে বেশ কয়েকবার উদ্যোগ নেওয়া হলেও তা বাস্তবায়ন সম্ভব হয়নি। কবে নাগাদ এসব প্রকল্প বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে তাও জানা নেই ডিএসসিসির। ফুটপাত স্থায়ীভাবে দখলমুক্ত রাখতে বিকল্প উপায়ে হকার পুনর্বাসন জরুরি মনে করেন নগর পরিকল্পনাবিদরা।

জানা গেছে, ঢাকার হকারদের পুনর্বাসনে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে প্রথম উদ্যোগ নেওয়া হয় ১৯৯৭ সালের ১৩ আগস্ট। প্রকৃত হকার নিশ্চিত করার জন্য বিদ্যমান হকারদের ছবিসহ তালিকা তৈরির নির্দেশনাও দেওয়া হয়। তালিকা প্রস্তুত হলেও হলিডে মার্কেট এবং হকার্স মার্কেট কোনোটিই তৈরি সম্ভব হয়নি। এরপর ২০১৬ সালের ৩০ মে হকার বসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের নির্দেশনায় ১৬টি স্থান চিহ্নিত করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। একই বছর ঢাকা মহানগর ট্রাফিক পুলিশের পূর্ব বিভাগ হলিডে মার্কেটের জন্য ছয়টি জায়গার তালিকা করে। প্রশিক্ষণ দিয়ে হকারদের দক্ষতা বৃদ্ধি করে বিদেশে পাঠানোর উদ্যোগ নেওয়া হয় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে। কিন্তু সে উদ্যোগটিও বাস্তবায়ন করতে পারেনি সিটি করপোরেশন। ‘ডিএসসিসির বিভিন্ন সড়ক ও ফুটপাত হতে উচ্ছেদকৃত হকারদের পুনর্বাসন’ শীর্ষক একটি প্রকল্প স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। প্রায় ১০ কোটি টাকার প্রকল্পটি ২০১৮ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে বাস্তবায়নের কথা ছিল। এর মাধ্যমে উচ্ছেদকৃত ছয় হাজার হকার পুনর্বাসনের কথা বলা হয়েছিল। সেই প্রকল্পটি বাস্তবায়নের কোনো উদ্যোগ নেওয়া হয়নি।

বাংলাদেশ হকার্স ফেডারেশনের সভাপতি এম এ কাশেম বলেন, ‘হঠাৎ হকার উচ্ছেদ করায় বিপাকে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা। উচ্ছেদ করার আগে প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন করা জরুরি ছিল।’ ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘হকারদের পুনর্বাসনের বিষয়টি সিটি করপোরেশন বিবেচনা করবে।’

মন্তব্য