kalerkantho

ক্যাপ্টেন কুকের ৬শ বছর আগেই অস্ট্রেলিয়া আবিষ্কার করে মুসলিমরা!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ মার্চ, ২০১৯ ১৯:১৩ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ক্যাপ্টেন কুকের ৬শ বছর আগেই অস্ট্রেলিয়া আবিষ্কার করে মুসলিমরা!

আফ্রিকার মুসলিম সালতানাত আমলের ৫টি প্রাচীন তাম্র মুদ্রা অস্ট্রেলিয়ার ইতিহাস নতুন করে লিখতে বাধ্য করবে। এতদিন জানা ছিল ক্যাপ্টেন কুক অস্ট্রেলিয়া আবিষ্কার করেন। কিন্তু নবম শতাব্দীর মুসলিম সালতানাতের ৫টি প্রাচীন তাম্র মুদ্রা ওই ঐতিহাসিক স্বীকৃতিকে চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে দিয়েছে।

১৭৭০ সালে ব্রিটিশ ক্যাপ্টেন কুক অস্ট্রেলিয়া আবিষ্কার করেন। কিন্তু তারও ৬শ বছর আগেই মুসলমানগণ অস্ট্রেলিয়ায় যান। কারণ তাদের ব্যবহৃত ৫টি প্রাচীন তাম্র মুদ্রা পাওয়া গেছে উত্তর অস্ট্রেলিয়ায়। ধারণা করা হচ্ছে ওসব তাম্র মুদ্রা ব্যবহার হত আফ্রিকার খিলাফত আমলে তাঞ্জানিয়ায়।

বড় জোর ১৬০৬ সাল পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার ইতিহাস পাওয়া যায়। যখন ডাচরা ওই অঞ্চলে যায়। কিন্তু ইন্ডিয়ানা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা এখন বিস্ময় বোধ করছেন কেমন করে হাজার বছরের পুরোনো তাম্র মুদ্রা মহাদেশটির অপর প্রান্তে পাওয়া গেল এই ভেবে।

অস্ট্রেলিয়ার শীর্ষ গবেষক ও বিজ্ঞানী ম্যাকেনটোস জানিয়েছেন তাম্র মুদ্রাগুলো ১৯৪৪ সালে প্রথম আবিষ্কার করেন সেনা সদস্য ম্যুরে আইজেনবার্গ। দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের সময় অস্ট্রেলিয়ার উত্তর উপকূলে ম্যুরে আইজেনবার্গ বালুর ভেতরে ওসব মুদ্রা খুঁজে পাযন। ১৯৭৯ সালে ম্যুরে আইজেনবার্গ অস্ট্রেলিয়ার একটি যাদুঘরে তাম্র মুদ্রাগুলো জমা দেন। এখন গবেষক ও বিজ্ঞানীরা অনুসন্ধান করছেন কি করে ওই মুদ্রাগুলো অস্ট্রেলিয়ায় গেল। ম্যুরে ৪টি তাম্র মুদ্রা পেয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার যে স্থানে ডাচ ইস্ট ইন্ডিয়া কম্পানি এসেছিল ১৬৯০ সালে। অর্থাৎ এতে এও প্রমাণিত হয় যে ক্যাপ্টেন কুকের আগেই ডাচরা অস্ট্রেলিয়ায় যায়।

ম্যাকেনটস ও তার গবেষক দল এধারণায় পৌঁছেছেন যে আফ্রিকার খিলাফত সালতানাত আমলেই তাম্র মুদ্রাগুলো অস্ট্রেলিয়ায় এসেছিল। ত্রয়োদশ থেকে ষোড়শ শতাব্দীতে আফ্রিকার মুসলিম শাসকগণ ভারতের সঙ্গে ব্যাপক বাণিজ্যিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। ম্যুরের আগে এধরনের প্রাচীন মুদ্রা পাওয়া যায় একমাত্র ওমানে।

ম্যাকেনটস মনে করছে তাম্র মুদ্রা পাওয়া যাওয়ার বিষয়টি প্রমাণ করে পূর্ব আফ্রিকা, আরব, ভারত ও অন্যান্য দ্বীপের সঙ্গে নৌবাণিজ্য ধারণার চেয়ে হাজার বছর পূর্ব থেকেই চালু ছিল। এটাও প্রমাণ হচ্ছে যে, ইউরোপের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার বাণিজ্যিক ও সাংস্কৃতিক সম্পর্ক তৈরি হবার আগেই মুসলিম সভ্যতার সঙ্গে যোগাযোগ গড়ে উঠেছিল। 

ম্যাকেনটোস বলছে, বিজ্ঞানী ও পুরাকীর্তি বিশেষজ্ঞরা কীভাবে তাম্র মুদ্রাগুলো অস্ট্রেলিয়ায় এল তা নিয়ে গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছে। তারা ম্যুরের এঁকে দেয়া মানচিত্র অনুসরণ করে যে স্থানে ওই মুদ্রাগুলো পাওয়া গিয়েছিল তা বেশ কয়েকবার ঘুরে ফিরে দেখছে। তাদের পরিদর্শনে অস্ট্রেলিয়ার একটি গোপন গুহাও বাদ পড়েনি। ওই গুহায় আরো কিছু প্রাচীন নিদর্শন পাওয়া যায় কী না তারও অনুসন্ধান চলছে।

মন্তব্য