kalerkantho

শনিবার  । ১৯ অক্টোবর ২০১৯। ৩ কাতির্ক ১৪২৬। ১৯ সফর ১৪৪১                     

গ্রিনল্যান্ডে বরফের নিচে রহস্যময় গর্ত!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৯:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গ্রিনল্যান্ডে বরফের নিচে রহস্যময় গর্ত!

গ্রিনল্যান্ডে অত্যন্ত পুরু বরফের চাদরের নিচে লুকিয়ে থাকা আরও একটি সুবিশাল গর্তের (ক্রেটার) হদিস মিলল। এর আগে গত বছরের নভেম্বরে এমনই একটি বিশালাকার গর্তের হদিস পেয়েছিলেন নাসার বিজ্ঞানীরা। সেই গর্তটা আকারে ছিল প্রায় প্যারিস শহরের সমান। 

হিয়াওয়াথা গ্লেসিয়ারের নিচে লুকিয়ে থাকা সেই গর্ত থেকে ১১৪ মাইল দূরে এবার আরও একটি সুবিশাল গর্তের খোঁজ পাওয়া গেল। এই গর্তটির চেহারা আগের চেয়েও অনেক বড়। এই গর্তটি প্রায় ২২ দশমিক ৭ মাইল চওড়া। যেখানে আগের গর্তটি ছিল ১৯ মাইল চওড়া।

আবিষ্কারের খবরটি বেরিয়েছে আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান-জার্নাল ‘জিওফিজিক্যাল রিসার্চ লেটার’-এর সাম্প্রতিক সংখ্যায়। পৃথিবীর বুকে আজ পর্যন্ত এই ধরনের যতগুলো গর্তের খোঁজ মিলেছে, তার মধ্যে চেহারার দিক দিয়ে এই গর্তটি রয়েছে তালিকার ২২ নম্বরে।

৮০ হাজার বছরের পুরোনো গর্ত!
বিজ্ঞানীরা মনে করছেন, পৃথিবীর বুকে আছড়ে পড়া দৈত্যাকার উল্কার জন্যই এই গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। আজ থেকে প্রায় ৮০ হাজার বছর আগে এই গর্তের সৃষ্টি হয়েছিল বলে ধারণা বিজ্ঞানীদের।

নাসার গডার্ড স্পেস ফ্লাইট সেন্টারের গ্লেসিয়োলজিস্ট জো ম্যাকগ্রেগর বলেছেন, আমরা বিভিন্ন উপায়ে পৃথিবীকে পর্যবেক্ষণ করি। পৃথিবী সৃষ্টির এতদিন পরেও এই ধরনের গর্তের খোঁজ পেয়ে আমরা উল্লসিত।

পুরু বরফের তলাতেও অতীত ঘটনার ‘পদচিহ্ন’!
গত নভেম্বরে হিয়াওয়াথা গ্লেসিয়ারের নিচে বিশালাকার গর্তের আবিষ্কারের আগে বিজ্ঞানীরা মনে করতেন গ্রিনল্যান্ড ও আন্টার্কটিকা এলাকায় বহু দূর অতীতের ঘটনার তথ্যপ্রমাণ পাওয়া কার্যত অসম্ভবই। কারণ সেগুলো অত্যন্ত পুরু বরফের চাদরের তলায় ঢাকা পড়ে গেছে।

কীভাবে খোঁজ মিলল দু’টি বিশালকার গর্তের?
বরফের নিচে ডুবে থাকা গ্রিনল্যান্ড দেখতে কেমন? তা জানার জন্য মানচিত্র বানাতে গিয়ে গ্রিনল্যান্ড অঞ্চলে প্রথম গর্ত বা ক্রেটারের সন্ধান পান বিজ্ঞানীরা।

এরপরই ওই অঞ্চল নিয়ে আরও উত্সাহিত হয়ে পড়েন বিজ্ঞানীরা। তারপর সর্বাধুনিক ও অত্যন্ত শক্তিশালী (হাই রেজোলিউশন) স্পেকট্রো-রেডিয়োমিটার যন্ত্রের সাহায্যে অনুসন্ধান চালাতে গিয়ে হিয়াওয়াথা গ্লেসিয়ারের থেকে উত্তর-পূর্বে ১১৪ মাইল বা ১৮৩ কিলোমিটার দূরে আরও একটি গোলাকার গভীর এলাকার সন্ধান পান তারা। সেই এলাকা ঢুঁড়তে গিয়েই খোঁজ মিলল গ্রিনল্যান্ডে বরফের নিচে লুকিয়ে থাকা দ্বিতীয় গর্তটির।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা