kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২২ আগস্ট ২০১৯। ৭ ভাদ্র ১৪২৬। ২০ জিলহজ ১৪৪০

শীতের রাতে প্রাচীরে ওরা কারা! চমকে উঠছেন পথচারীরা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১২ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৮:১৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শীতের রাতে প্রাচীরে ওরা কারা! চমকে উঠছেন পথচারীরা

শীতের রাতে মদ্যপানের মাত্রা বেশি হওয়ায় মাঝবয়সি ব্যক্তিটি প্রথমে ঠাহর করতে পারেননি ফাঁকা রাস্তায় ঠান্ডার মধ্যে পাঁচিলের উপরে কে বসে আছে।

পরনে নীল লুঙ্গি আর সাদা গেঞ্জি। কয়েক বার চিৎকার করেও মদ্যপ ব্যক্তি উল্টো দিক থেকে কোনো সাড়াশব্দ পেলেন না। বিরক্ত হয়ে বলেই ফেললেন, আমার না হয় গা গরম আছে। তুই কে? এত ঠান্ডায় খালি গায়ে পাঁচিলের উপরে বসে কী করছিস?

শনিবার দুপুরে এই গল্প করতে গিয়ে হেসে লুটোপুটি খাচ্ছিলেন কলকাতার বাসিন্দা এক বৃদ্ধ। কারো আবার দাবি, রাত-বিরেতে ওই মাঝবয়সি এবং আরেক নারীকে দু’টি পাঁচিলে বসে থাকতে দেখে অনেকেই ঘাবড়ে যাচ্ছেন।

এমনকি রাস্তার কুকুরও তাদের সামনে এসে ঘেউ ঘেউ করছে। তবে দু’দিক থেকে প্রত্যুত্তর না আসায় অবলা সারমেয়র দলও ভ্যাবাচ্যাকা খাচ্ছে। এমনকি কান্নাও জুড়ে দিচ্ছে।

আসলে পাড়ার ক্লাবের দুর্গা পূজার মণ্ডপ থেকে বনমালী চ্যাটার্জি স্ট্রিটের দু’টি বাড়ির পাঁচিলে দুটি মূর্তি বসিয়ে দেওয়া হয়েছে বনমালী চ্যাটার্জি স্ট্রিটে।

পাশেই টালা বারোয়ারি ক্লাবের দুর্গা পূজা উপলক্ষে দু’জনের সেই সময় জায়গা জুটেছিল মণ্ডপ চত্বরে। পূজার পর এখন অতি জীবন্ত দু’টি মূর্তি আর প্রাণে ধরে আবর্জনায় ফেলতে পারেননি উদ্যোক্তারা। বসিয়ে দিয়েছেন পাড়ার দুই বাসিন্দার বাড়ির পাঁচিলের উপরে।

তার পর থেকেই বিশেষ করে রাতে পাঁচিলের উপরে বুড়ো ও বুড়ির মূর্তি দু’টি দেখে যারপরনাই ভয় পাচ্ছেন অনেকেই। মূর্তি দু’টি বেশ আলোচনার খোরাকও হয়ে গেছে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা