kalerkantho

বুধবার । ২১ আগস্ট ২০১৯। ৬ ভাদ্র ১৪২৬। ১৯ জিলহজ ১৪৪০

দেড় ঘণ্টা ধরে রাস্তায় বড় পর্দায় পর্নোগ্রাফি!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ জানুয়ারি, ২০১৯ ১২:১৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেড় ঘণ্টা ধরে রাস্তায় বড় পর্দায় পর্নোগ্রাফি!

অফিসের কম্পিউটারে পর্ন দেখার অভ্যাস থাকলে সতর্ক হন। আপনার ক্ষণিকের আনন্দ বড় সমস্যায় ফেলতে পারে গোটা শহরকেই। সম্প্রতি চীনে এক কর্মচারীর ভুলে প্রকাশ্যে রাস্তায় ৯০ মিনিট ধরে চলল নানা ধরনের নীলছবি। ব্যস্ত রাস্তায় একটি বড় বিজ্ঞাপনের ডিজিটাল পর্দায় দেখা গিয়েছে একের পর এক পর্ন। সাংহাইস্টের মতে, এমন ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই পথচারীরা বিস্মিত হয়ে পড়েন।

চীনের লিয়াং জিয়াংসু শহরের রাস্তায় বসানো জায়ান্ট স্ক্রিনে পর্নোগ্রাফিক সিনেমা চালিয়ে ফেলার ভুলটি ছিল এক কর্মচারীর। তিনি কাজ করতে করতে ভেবেছিলেন সময় কাটাতে একটু পর্ন দেখবেন। সবই ঠিক ছিল, কিন্তু পর্ন দেখার তাড়না হোক বা উত্তেজনায় তিনি ভুলেই গিয়েছিলেন তাঁর কম্পিউটারের সঙ্গে রাস্তার ওই জায়েন্ট স্ক্রিনেরও সংযোগ রয়েছে। ওই কর্মচারী ভেবেছিলেন রাত হয়ে গিয়েছে বলে হয়তো বন্ধ হয়ে গেছে স্ক্রিনটি। কিন্তু আসলে বন্ধ হয়নি তা তিনি জানতেন না। এর ফলে দেড় ঘন্টা ধরে ওই বড় পর্দায় চলতে থাকে তাঁর কম্পিউটারে চালানো পর্ন। 

স্থানীয় প্রতিবেদনের মতে, অনেক যাত্রীই এই অদ্ভুত জিনিস দেখে রাস্তায় দাঁড়িয়ে ওই বড় পর্দায় পর্নের ছবি তুলতে থাকেন। কেউ কেউ সুযোগ বুঝে নিজের মোবাইলে সযত্নে ভিডিও করে রাখেন ওই নীলছবির পুরো অংশ। চীনা সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিতে এখন ভাইরাল এই ভিডিও ও ছবিগুলি।

অবশ্য পরে এ বিষয়টি নজরে আসে ওই কর্মীচারীর এক সহকর্মীর। পরিস্থিতি বুঝতে পেরে তৎক্ষণাৎ তিনি ফোন করেন তাঁর বন্ধুকে। গোটা বিষয়টি বলার পরে নিজের এই মারাত্মক ভুল বুঝতে পেরে প্রায় দেড় ঘন্টা পরে ওই পর্ন বন্ধ করে দেন তিনি।

জানা গেছে, এ ঘটনার তদন্ত চলছে। 

এর আগে গত বছর ভারতেও অনুরূপ একটি ঘটনায় দিল্লির ব্যস্ততম একটি মেট্রো স্টেশনে বড় পর্দায় পর্নোগ্রাফি চলতে দেখা গিয়েছিল।
সূত্র: এনডিটিভি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা