kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ অক্টোবর ২০২২ । ২১ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

রক্তের রাজকীয় বিরল রোগ হিমোফিলিয়া কী? জেনে নিন

অনলাইন ডেস্ক   

৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১০:৫৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে




রক্তের রাজকীয় বিরল রোগ হিমোফিলিয়া কী? জেনে নিন

হিমোফিলিয়া হচ্ছে একটি বংশানুক্রমিক জিনগত রোগ। এই রোগে রক্ত চলাচলে সমস্যা হয়। হঠাৎ শরীরের কোথাও কেটে গেলে রক্তপাত বন্ধ হয় না। শুধু  পুরুষরা এই রোগে আক্রান্ত হয়।

বিজ্ঞাপন

মেয়েরা এই রোগের বাহক হয়। কারণ, মেয়েদের দুটি এক্স ক্রোমোজোম থাকে আর পুরুষদের একটি এক্স ও অপরটি ওয়াই। নারীদের দুটি এক্স (XX) ক্রমোজম থাকে আর পুরুষদের থাকে একটি এক্স (X) ও অপরটি ওয়াই (Y) ক্রমোজম। ছেলেদের এই একটিমাত্র  X ক্রমোজমটি যদি অসুস্থ হয়ে য়ায, তাহলে এফ-৮ ( F-VIII)ও  এফ-৯ (F-IX) তৈরি হয় না।

X ক্রমোজমে এফ-৮ ও এফ-৯ ( F8 ও F9)নামক জিন থাকে, যা রক্তে ক্লটিং ফ্যাক্টর নামে বিশেষ ধরনের কতগুলো প্রোটিন থাকে, এগুলোই তরল রক্তকে জমাট বাঁধতে সাহায্য করে। এর মধ্যে হিমোফিলিয়া রোগীদের রক্তে ফ্যাক্টর-৮ (VIII)ও ফ্যাক্টর-৯ (IX)কম থাকে। যে রোগীর শরীরে যত কম ফ্যাক্টর থাকে, সেই রোগীর হিমোফিলিয়া ততই মারাত্মক হয়। অধিকাংশ রোগীর ক্ষেত্রে ফ্যাক্টর-৮ (VIII)কম থাকে। এই ধরণের হিমোফিলিয়াকে ক্লাসিক হিমোফিলিয়া বা হিমোফিলিয়া-এ ( A)বলা হয়। ফ্যাক্টর-৯ (IX)কম থাকলে সেই হিমোফিলিয়ার নাম হয় হিমোফিলিয়া-বি (B)। এছাড়াও অন্যান্য ক্লটিং ফ্যাক্টরের অভাবে বিরল ধরনের আরও কয়েকটি হিমোফিলিয়া দেখা যায়।

প্রতিবছর ১৭ এপ্রিল হিমোফিলিয়া রোগ সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য বিশ্বব্যাপী ‘বিশ্ব হিমোফিলিয়া দিবস’ উদযাপন করা হয়ে থাকে। আধুনিক চিকিৎসায় হিমোফিলিয়া রোগীকে কৃত্তিম ভাবে তৈরি ক্লটিং ফ্যাক্টর কন্সেন্ট্রেট ইনজেকশন দিয়ে স্বাভাবিক করা হয়। তবে রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখতে রোগীকে সারাজীবনই এই মূল্যবান ইনজেকশন নিয়মিত নিয়ে যেতে হয়।  রাণী ভিক্টোরিয়া হিমোফিলিয়ার বাহক ছিলেন। তার বংশে অনেকেই এই রোগে আক্রান্ত হয়। তাই হিমফিলিয়াকে রাজকীয় রোগও বলা হয়ে থাকে।

সূত্র : জি ২৪ ঘন্টা।

 



সাতদিনের সেরা