kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জুন ২০২২ । ১৪ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৭ জিলকদ ১৪৪৩

চুলের যত্নে রিঠা

প্রাকৃতিক উপাদান হিসেবে চুলে নানা উপকার এনে দেয় রিঠা। নিয়মিত ব্যবহারে চুল মসৃণ হয়। কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করে। চুলের স্বাস্থ্য ফেরায়। চুলের ময়লা, রুক্ষতা, ভঙ্গুরতা দূর করে। বিউটি জোন মেকওভার অ্যান্ড স্যালনের রূপ বিশেষজ্ঞ আনজুম শিউলীর সঙ্গে কথা বলে লিখেছেন ফাতেমা ইয়াসমীন

অনলাইন ডেস্ক   

১৬ মে, ২০২২ ১৪:১৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চুলের যত্নে রিঠা

মডেল : শিরিন শীলা; ছবি : আবু সুফিয়ান নিলাভ

গরমে অন্য সময়ের চেয়ে সাধারণত চুলের সমস্যা বেশি দেখা দেয়। বাইরে চলাচল, রোদ, বৃষ্টি, ধুলা-ময়লার কারণে চুলে ময়লা হয় বেশি। ময়লা থেকে খুশকির প্রাদুর্ভাব বাড়ে। পাশাপাশি চুল পড়ে যাওয়া, চুল রুক্ষ হয়ে যাওয়া, চুলের আগা ফাটার মতো সমস্যাগুলোও একযোগে হানা দেয়।

বিজ্ঞাপন

এসব সমস্যা থেকে বাঁচতে যেমন নিয়মিত চুল পরিষ্কার করা জরুরি, তেমনি সঠিকভাবে চুলের যত্নও নিতে হবে।

 

kalerkantho

চুল পরিষ্কারের জন্য শ্যাম্পু ব্যবহার করা হয় বেশি। তবে মাঝেমধ্যে শ্যাম্পুর পাশাপাশি প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে চুল পরিষ্কার করলে আরো বেশি কার্যকর ফল পাওয়া যায়। তা ছাড়া যাদের চুলে শ্যাম্পু ঠিকমতো ম্যাচ করে না তাদের জন্যও প্রাকৃতিক উপাদান উপকারী। রিঠা এমন একটি প্রাকৃতিক উপাদান, যা চুলের বারোয়ারি যত্নে নিশ্চিন্তে ব্যবহার করা যায়। এই গরমে সুন্দর ও ঝলমলে চুলের অধিকারী হতে চাইলে সপ্তাহে এক দিন রিঠা ব্যবহারের বিকল্প নেই।

kalerkantho

রিঠা কী

রিঠা মূলত এক ধরনের ফল। এর বৈজ্ঞানিক নাম  স্পিনডুস এমারজিনাতুস [ঝধঢ়রহফঁং ঊসধত্মরহধঃঁং]। গায়ে মাখার সাবানের উপাদান হিসেবে রিঠা বেশি ব্যবহূত হয়ে থাকে। ভারতবর্ষে প্রাচীন কাল থেকে রিঠা আয়ুর্বেদশাস্ত্রে নানাভাবে ব্যবহার হয়ে আসছে। বিশেষ করে চুল পরিষ্কারের জন্য রিঠার ব্যবহার আদিকাল থেকে। রিঠা সম্পূর্ণ প্রাকৃৃতিক গুণাগুণসম্পন্ন একটি ভেষজ উপাদান। রিঠা ব্যবহারে চুলের কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয় না।

kalerkantho

ব্যবহার

একটি পাত্রে সামান্য পানি নিয়ে তাতে কয়েকটি রিঠা সারা রাত ভিজিয়ে রাখুন। পরদিন সকালে আরেকটি পাত্রে সামান্য পানি কুসুম গরম করে ফুটিয়ে নিন। এবার তাতে সারা রাত ভেজানো রিঠা ও পানি দিয়ে আরো কিছুক্ষণ ফুটিয়ে নিতে হবে। মিশ্রণটি ঠাণ্ডা করে একটি কাচের বোতলে ভরে রাখতে হবে। এটি গোসলের সময় শ্যাম্পু হিসেবে ব্যবহার করতে হবে। চুলে মিশ্রণটি লাগিয়ে কমপক্ষে পাঁচ মিনিট ম্যাসাজ করতে হবে। সপ্তাহে একবার করে রিঠার এই শ্যাম্পু ব্যবহার করলে চুলের বেশির ভাগ সমস্যাই দূর হয়। নিয়মিত ব্যবহারে অল্প সময়ের মধ্যেই উপকারিতা বোঝা যাবে।

বাজারে আস্ত ও গুড়া দুই রকম রিঠাই পাওয়া যায়। পলি ব্যাগ ও প্লাস্টিকের আলাদা আলাদা বোতলে পাওয়া যাবে। চাইলে গ্রাম হিসেবেও কিনতে পাবেন। ১০০ গ্রাম রিঠা মানভেদে দাম পড়বে ১০০ থেকে ১২০ টাকার মধ্যে।

 

উপকারিতা

১।  রিঠা চুলের ডগা ফাটা বন্ধ করে

২ । মাথার ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর করে

৩ । চুলের ঘনত্ব বাড়ে।

৪।  চুল পড়া কমে

৫।  উকুনের সমস্যা সমাধান হয়

৬।  কন্ডিশনার ব্যবহার করার দরকার হয় না

৭।  চুল ভালো ও মজবুত থাকে

৮।  কোঁকড়া চুল সোজা হয়

৯ । চুল নরম ও মসৃণ করে

১০। নতুন চুল গজায়।

 

সতর্কতা

১. চুল শুষ্ক হলে অল্প পরিমাণে রিঠা ব্যবহার করতে হবে।

২. সপ্তাহে দুবারের বেশি রিঠা দিয়ে শ্যাম্পু করা যাবে না। এতে চুল বেশি শুষ্ক হয়ে যেতে পারে।

৩. রিঠা ব্যবহার করলে নিয়মিত সপ্তাহে এক দিন চুলে নারকেল তেল দিতে হবে।



সাতদিনের সেরা