kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩০ জুলাই ২০২১। ১৯ জিলহজ ১৪৪২

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে জাদুর মতো কাজ করে এই আয়ুর্বেদ টোটকা

অনলাইন ডেস্ক   

১৩ জুন, ২০২১ ১৪:৫২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে জাদুর মতো কাজ করে এই আয়ুর্বেদ টোটকা

বর্তমানে আমরা যে ধরনের জীবনযাপন করি তাতে ডায়াবেটিস হওয়াটা অস্বাভাবিক কিছু না। দিন দিন এই রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। রক্তে সুগারের মাত্রা বেড়ে যাওয়ার ফলে শরীরে কি ধরনের সমস্যা হয় তা সম্পর্কে আমরা কমবেশি সবাই জানি। ওষুধ, শরীরচর্চা এবং খাওয়া-দাওয়া নিয়ম মেনে করলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকে বটে, কিন্তু তা কোনোভাবেই পুরোপুরি নিরাময় করা সম্ভব নয়।

ডায়াবেটিস এমন একটি রোগ যা সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মানুষের অসুস্থতা বাড়িয়ে তোলে। চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে ওষুধ গ্রহণের পাশাপাশি আয়ুর্বেদিক চিকিত্সার মাধ্যমে ডায়াবেটিস অনেকাংশে নিয়ন্ত্রণ করা যায়। বিশেষজ্ঞদের মতে, আয়ুর্বেদ হলো ডায়াবেটিসের চিকিৎসার একটি জাদুকরি উপায়। অনেকে দুধ খেতে তেমন একটা পছন্দ করেন না, তবে বিশেষজ্ঞরা বিশ্বাস করেন যে প্রতিদিন এক গ্লাস দুধ খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে ভালো। আয়ুর্বেদে দুধের সঙ্গে দারচিনি মিশিয়ে খেলে তা সুগার রোগীদের জন্য ভালো।

দারুচিনির দুধে পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ
দারুচিনিতে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। এটি ক্যালসিয়াম, আয়রন, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস, পটাসিয়াম এবং ভিটামিনসমৃদ্ধ। এর পাশাপাশি রয়েছে বিটা ক্যারোটিন, আলফা ক্যারোটিন, লাইকোপেন এবং লুটিন। দুধে দারুচিনি মিশ্রণটিতে থাকা অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট রক্তে শর্করাকে হ্রাস করতে এবং এর ফলে সংক্রমণের ঝুঁকি হ্রাস করতে পারে। চিকিৎসকরা বলছেন, দারুচিনিযুক্ত দুধ পান করলে ডায়াবেটিস রোগীদের রক্তে চিনি বাড়বে না এবং রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়বে।

দারুচিনি দুধ কীভাবে তৈরি করবেন
স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা টাইপ ২ ডায়াবেটিস এবং ইনসুলিন প্রতিরোধের ক্ষেত্রে এটি গ্রহণের পরামর্শ দেন। এর জন্য আপনার খুব বেশি কিছু করার দরকার নেই। এই দুধটি তৈরি করতে, আপনাকে তিন চামচ দারুচিনি গুঁড়ো দুধে মিশিয়ে ২০ মিনিটের জন্য ভালো করে ফুটিয়ে নিন। এর পর ঠাণ্ডা করুন। দুধ ছাড়াও, আপনি চাইলে দারুচিনির চা-ও খেতে পারেন।



সাতদিনের সেরা