kalerkantho

শনিবার । ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৬ জুন ২০২০। ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

বেশি হাত ধুলেও বিপদ!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ এপ্রিল, ২০২০ ১০:২২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বেশি হাত ধুলেও বিপদ!

করোনাকে দূরে রাখার জন্য হাত ধোয়ার বিকল্প নেই। তবে অতিরিক্ত হাত ধোয়ার ফলে হাতের ত্বক হয়ে যাচ্ছে শুষ্ক, রুক্ষ আর খসখসে৷ সুতরাং হাত ধোয়ার পরে অবশ্যই ক্রিম লাগিয়ে নিন।

শীতকালে হাত খসখসে হয়ে যায়, অনেক সময় ফেটেও যায়। এরকম হাত কেবল অস্বস্তিকরই নয়, এটি বেদনাদায়কও হতে পারে। এমনটা এখন অতিরিক্ত হাত ধোয়ার কারণেও হতে পারে।

করোনা ভাইরাসকে দূরে রাখতে সর্বত্র বেশি বেশি হাত ধোয়ার কথা বলা হচ্ছে। এখন এত বেশি হাত ধোয়ার ফলে হাতের ত্বক যেমন শুষ্ক হতে পারে, তেমনি হাতে অতিরিক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারেও ত্বকের চুলকানি, জ্বালা বা অন্যান্য সমস্যা হতে পারে। আমাদের চারিপাশে অসংখ্য জীবাণু রয়েছে, যা ফাটা বা শুষ্ক হাত দিয়ে ধরার মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করে থাকে।

আমাদের দেহ ফ্যাট উৎপাদন করতে প্রায় চার সপ্তাহ সময় নেয়, সুতরাং যদি কোনো ক্রিম ব্যবহার না করে সারাক্ষণ শুধু হাত ধোয়া হয়, তাহলে হাতের ত্বক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। হাত ধোয়ার পরে ফ্যাটযুক্ত ক্রিম বা লোশন ব্যবহার করা সকলের জন্যই জরুরি।

অনেক ডাক্তার বলছেন, হ্যান্ড স্যানিটাইজার বা জীবাণুনাশকের চেয়ে হাত ধোয়ার সময় সাবান ব্যবহার করাই ভালো ৷ তবে যারা অসুস্থ বা যাদের ইমিউন সিস্টেম দুর্বল, তাদের জীবাণুনাশক ব্যবহার করা উচিত।

মানুষের বয়স যত বাড়ে, ত্বক তত কম আর্দ্রতা সংরক্ষণ করতে পারে। তাদের শরীরের নিজস্ব ফ্যাট উৎপাদনও কমে যায়। তাই তাদের ঘনঘন হাতে ক্রিম লাগানো উচিত।

নিজেই তৈরি করে নিতে পারেন হাতের ক্রিম
আমাদের নানী-দাদীরা যেমন করতেন, সেরকম আপনিও ঘরেই তৈরি করে নিতে পারেন হাতের ক্রিম৷ গোলাপ জল, তাজা টমেটোর রস, তাজা লেবুর রস এবং সমপরিমাণ গ্লিসারিন মিশিয়ে নিন৷ এবার তৈরি হয়ে গেল প্রাকৃতিক হ্যান্ড ক্রিম ৷ এখন হাতে যত বেশি ক্রিম ব্যবহার করবেন, আপনার স্বাস্থ্যের জন্য ততটাই মঙ্গল ৷ 

সূত্র: ডয়চে ভেলে

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা