kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ চৈত্র ১৪২৬। ৩১ মার্চ ২০২০। ৫ শাবান ১৪৪১

করোনা সংক্রমণ থেকে বাঁচতে যা করতে হবে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ মার্চ, ২০২০ ১৬:২৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



করোনা সংক্রমণ থেকে বাঁচতে যা করতে হবে

লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা একে আন্তর্জাতিক মহামারি ঘোষণা করার পরেই সাধারণ মানুষকে যতোটা সম্ভব ঘরে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। খুব প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বের না হওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু এভাবে মানুষকে ঘরবন্দি করে রাখা একেবারেই অসম্ভভ। কিন্ত উপায় নেই রোগ থেকে বাঁচতে সামাজিকতা এখন দূরে রাখাই শ্রেয় বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। 

ছয় ফুট দূরত্ব বজায় রাখুন

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, করোনা সংক্রমণ রুখতে যতোটা সম্ভব একে অপরের মধ্যে দূরত্ব বজায় রাখুন। ১০ জনের বেশি একটা জায়গায় কেউ থাকবেন না। যদি করোনা সংক্রামিত দেশ থেকে কেউ সফর করে আসেন তাহলে তার থেকে একেবারেই দূরত্ব বজায় রাখুন।

একান্তই বাড়ির বাইরে বের হতে হলে কী করবেন?

যদি একান্তই বাড়ির বাইরে বের হতে হয় তাহলে নির্দিষ্ট কিছু নিয়ম মেনে চলা জরুরি। যদিও করোনা ভাইরাস বাতাসের মাধ্যমে সংক্রমিত হয় না। করোনাভাইরাস সংক্রমিত ব্যক্তিকে স্পর্শ করলে, হাঁচি, কাশির মাধ্যমে পাশের জনের শরীরে সংক্রমিত হয়। তাই বাড়ি থেকে বের হওয়ার আগে ভালো করে হাত ধুয়ে বের হোন এবং বাড়ি ফেরার পরেও হাত ধুতে হবে। কোনোভাবেই হাত না ধুয়ে সেটা চোখে মুখে দেওয়া যাবে না।

হোম ডেলিভারি নিলে কি করবেন?

যদি এই পরিস্থিতিতে কেউ কোনো জিনিস হোম ডেলিভারি নেন, তাহলে কতগুলো বিষয় মেনে চলতে হবে। সতর্ক থাকতে হবে ডেলিভারি এজেন্টদেরও। গ্রাহকের জিনিস সরাসরি তার হাতে না দিয়ে দরজার সামনে নামিয়ে রাখুন। কোনো কাগজে সই করাতে হলে গ্রাহককে বলুন নিজের পেন ব্যবহার করতে। গ্রাহকের সই হয়ে গেলে সেই কাগজে হাত দিয়ে ব্যাগে রেখে হাত ধুয়ে নিন। গ্রাহকদেরও সচেতন থাকতে হবে। করোনা সংক্রমণ যাতে না ছড়ায় যতোটা সম্ভভ কাগুজে কাজ কম করুন। কার্ডে পেমেন্ট করুন। এতে সংক্রমণের আশঙ্কা কম থাকবে।

রেস্তরাঁ এড়িয়ে চলাই ভালো

এই সময়ে রেস্তরাঁয় খাওয়া এড়িয়ে চলাই ভালো। যদি নেহাত যেতেই হয় তাহলে অন্যান্য গ্রাহকদের সঙ্গে ছয় ফুট দূরত্ব বজায় রাখুন। খাবার টেবিল, প্লেট, বোতল ধরার আগে হাত ভালো করে ধুয়ে অথবা স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন। এতে সংক্রমণের সম্ভাবনাও কম থাকবে।

শিশুদের নিরাপদে রাখা জরুরি

স্কুল কলেজ ছুটি হয়ে গেলেও সর্বক্ষণ শিশুদের ঘরে রাখা কঠিন হয়ে পড়ে। কিন্তু তারপরেও কিছু অবশ্য পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখতে হবে। বারবার শিশুদের হাত ধুয়ে পরিষ্কার করাতে হবে। অথবা হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার করাতে হবে।

নিজেকে সুরক্ষিত রাখুন

নিজেকে সুরক্ষিত রাখা এই সময়ে সবচেয়ে জরুরি। বাড়ির বাইরে বের হলে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করুন। বারবার হাত ধোয়ার অভ্যাস তৈরি করুন। তবে সবচেয়ে ভালো হয় সংক্রমণ থেকে বাঁচতে বাড়িতে থাকা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা