kalerkantho

টমেটো খাওয়ার একমাত্র সঠিক পদ্ধতি জেনে নিন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৯:৩৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



টমেটো খাওয়ার একমাত্র সঠিক পদ্ধতি জেনে নিন

টমেটো পছন্দ করে না এরকম মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিল। কেউ এটাকে সবজি হিসেবে খায় আবার অনেকেই টমেটো খায় ফল হিসেবে। তবে টমেটো কিন্তু দুইভাবেই উপভোগ করা যায়।

শীতকালে বাজারে ব্যাপক হারে টমেটো উঠতে থাকে। ওই সময় টমেটোর কদর অনেকটাই কমে যায়। তবে বছরের অন্য সময় কিন্তু অল্পবিস্তুর পাওয়া টমেটোর চাহিদা যেমন বেশি, দামও চড়া।

সচরাচর টমেটো সবজি হিসেবে অন্য সবজির সঙ্গে রান্না করে খাওয়া হয়। এছাড়া সালাদ হিসেবে খাওয়ার চল রয়েছে। আর টমেটো সস অনেকেরই প্রিয়। ইদানীং প্যাকেটজাত টমেটো সস সারাবছর পাওয়া যায়। রেস্তোরাঁতে তো টমেটো সসের নামে নকলেরও প্রচলন আছে।
 
তবে একশ্রেণির মানুষ টমেটোকে আপেলের মতো করে খেয়ে থাকেন। তারা টমেটোকে ফল হিসেবেই ভাবতে চান। সে যাই হোক না কেন, টমেটোর চাহিদা যে তুঙ্গে তা নিয়ে বলার অবকাশ নেই।

কিন্তু টমেটো খাওয়ার একমাত্র সঠিক পদ্ধতি কিন্তু রয়েছে। আসুন জেনে নেওয়া যাক সেই পদ্ধতি সম্পর্কে।

প্রথমে টমেটো তুলে নিন

টমেটো কিন্তু দোকান থেকে নিলে হবে না। টমেটো তুলতে হবে একেবারে গাছ থেকে। সেটা মাঠ থকে তুললেও হবে না। গাছটি হতে হবে আপনার নিজ হাতে লাগানো। সেটা হতে পারে বাড়ির পাশের অল্পবিস্তর পড়ে থাকা জায়গা কিংবা ছাদের বাগানে। 

কারণ, বাজারে এমন কোনো টমেটো পাওয়া যায় না যে টমেটোতে রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়নি। সে কারণে জমি থেকে সরাসরি তুলে নিয়ে আসলেও সেটা আপনার লাগানো গাছ প্রাকৃতিকভাবে বেড়ে উঠে ফল দিলে যেরকম হবে, তার মতো হবে না।

টমেটো কেটে নিন

টমেটো ভালোভাবে কেটে নিন। এরপর তাতে লবণ মেশান। তবে বাড়িতে থাকা লবণ হলে চলবে না। লবণটা হতে হবে সামুদ্রিক। কারণ, টমেটো খাওয়ার জন্য ওই লবণের বিকল্প নেই।

এবার টমেটো খান

টমেটো খাওয়ার সময় পরিবারের অন্যদের সঙ্গে বসার কোনো দরকার নেই। কারণ, টেলিভিশন দেখতে দেখতে কিংবা স্মার্টফোন ব্যবহার করার সময়, অথবা পরিবারের অন্যদের সঙ্গে কথা বলতে বলতে এর মজা উপলব্ধি করা যায় না।

টমেটোতে কামড় দেওয়ার পর স্বাদ ভালোভাবে পেতে চোখ বন্ধ করে ফেলুন। কারণ, চোখ খোলা রেখে দ্রুত গতিতে টমেটো সাবাড় করে ফেললে আপনি প্রকৃত মজা থেকে বঞ্চিত হবেন।

চোখ বন্ধ রেখে জিহ্বা হালকাভাবে নড়াচড়া করে টমেটো খেতে থাকলে স্বাদের পাশাপাশি টমেটোর মনোমুগ্ধকর গন্ধও পেতে পারেন। সবমিলিয়ে দারুণ এক অনুভূতি তৈরি হবে।

  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা