kalerkantho

মঙ্গলবার। ১৬ জুলাই ২০১৯। ১ শ্রাবণ ১৪২৬। ১২ জিলকদ ১৪৪০

১৬তম বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন

প্রিলিমিনারি পরীক্ষার প্রস্তুতি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ জুন, ২০১৯ ০৯:১১ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



প্রিলিমিনারি পরীক্ষার প্রস্তুতি

সম্প্রতি ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার (২০১৯) বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। এ পরীক্ষার প্রিলিমিনারির প্রস্তুতি নিয়ে লিখেছেন ১৪তম নিবন্ধনে তালিকাভুক্ত শিক্ষক মিকাইল ইসলাম নিয়ন

দেশের বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে স্কুল, স্কুল-২ ও কলেজ পর্যায়ে শিক্ষক হতে হলে ‘শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা’য় অংশ নিতে হয়। বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) অধীনে এ পরীক্ষায় বাছাই প্রক্রিয়া হয় তিন ধাপে—প্রিলিমিনারি, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা। প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় পাস করে লিখিত পরীক্ষায় বসতে হবে। লিখিত পরীক্ষা টপকালে সবশেষে মৌখিক। প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হয় চার বিষয়ে আর লিখিত পরীক্ষা হয় প্রার্থীর নির্বাচিত বিষয়ে।

প্রশ্ন পদ্ধতি : প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হবে ১০০ নম্বরে, এমসিকিউ (বহু নির্বাচনী প্রশ্ন) পদ্ধতিতে। সময় থাকবে ১ ঘণ্টা। মোট প্রশ্ন থাকবে ১০০টি, প্রতিটি প্রশ্নের মান ১। প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য প্রাপ্ত নম্বর থেকে ০.৫০ নম্বর করে কাটা যাবে। ৪০ শতাংশ নম্বর পেলেই প্রিলিমিনারিতে পাস ধরা হবে।

উত্তরপত্র মূল্যায়ন হবে Optical Mark Readable Litho Code যুক্ত ওএমআর মেশিনে কম্পিউটারের মাধ্যমে। 

বিষয় ও নম্বর বণ্টন : বাংলা ২৫, ইংরেজি ২৫, গণিত ২৫ এবং সাধারণ জ্ঞানে ২৫ নম্বর; মোট ১০০ নম্বরের পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে।

বাংলা : বাংলা অংশে ভালো করতে হলে জোর দিতে হবে ব্যাকরণে। ভাষারীতি, বিরাম চিহ্নের ব্যবহার, বাগধারা ও বাগবিধি, শুদ্ধকরণ, সন্ধিবিচ্ছেদ, কারক, বিভক্তি, সমাস, প্রত্যয়, সমার্থক ও বিপরীতার্থক শব্দ, বাক্য সংকোচন ও লিঙ্গ পরিবর্তনের ওপর ভালো দখল রাখতে হবে। স্কুল পর্যায়ের জন্য নবম ও দশম শ্রেণির বোর্ডের ব্যাকরণ বইয়ের আদ্যোপান্ত পড়তে হবে। কলেজ পর্যায়ের জন্য একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির বোর্ড বই দেখতে হবে।  

ইংরেজি : গ্রামারের খুঁটিনাটি বিষয়গুলোতে দুর্বলতা কাটাতে হবে। Completing Sentences, Translation From Bangali to English, Change of parts of Speech, Right Forms of verb, Fill in the Blanks with Appropriate Word, Transformation of sentences, Synonyms and Antonyms,Voice Change, Narration, Idioms and Phrases, Article টপিকগুলোর নিয়ম দেখার পাশাপাশি এগুলোর ওপর তৈরি নমুনা প্রশ্ন দেখে অনুশীলন করতে হবে। এসব টপিক থেকেই প্রশ্ন আসবে। ইংরেজি অংশে ভালো প্রস্তুতির জন্য প্রফেসরস প্রকাশনীর ‘কমপ্লিট এক্সাম’ বইটি বেশ কাজে দেবে।

গণিত : পাটিগণিত অংশে ঐকিক নিয়ম, লসাগু, গসাগু, শতকরা, সুদকষা, লাভ-ক্ষতি, অনুপাত-সমানুপাত অধ্যায়গুলো ভালোভাবে চর্চা করতে হবে।  বীজগণিতের উত্পাদক, বর্গ ও ঘনসংবলিত সূত্রাবলি এবং প্রয়োগ, গসাগু, সূচক ও লগারিদম অধ্যায় থেকে যেভাবেই প্রশ্ন আসুক, যেন ঠিকভাবে দেওয়া যায়, সেভাবেই প্রস্তুতি নিতে হবে।

জ্যামিতির ক্ষেত্রে রেখা, কোণ, ত্রিভুজ, চতুর্ভুজ, ক্ষেত্রফল ও বৃত্ত অধ্যায় থেকেও যেন কিছু বাদ না যায়। অনেক সময় প্রশ্নে এমন কিছু ‘সমস্যা’ দেওয়া থাকে, যেগুলোর সমাধানে অনেক সময় লেগে যায়। এর জন্য আগে থেকেই বড় ও জটিল সমস্যা বা অঙ্কের সমাধানের টেকনিক বা সংক্ষিপ্ত পদ্ধতি সম্পর্কে জানা থাকতে হবে। নমুনা প্রশ্ন দেখে বেশি বেশি চর্চা করলেই সহজ ও অল্প সময়ে সমাধানের টেকনিক বের করা যাবে।

সাধারণ জ্ঞান : প্রতিদিন পত্রিকা ও অনলাইন পোর্টালগুলো দেখলেই সাধারণ জ্ঞানে আপডেটেড থাকা যায়। নিয়মিত ফেসবুক ব্যবহার করলে দৈনিক পত্রিকা ও অনলাইন পোর্টালগুলোর অফিশিয়াল পেইজে লাইক দিয়ে রাখুন। তাহলে সেসব সাইটের খবরগুলো সময়ে সময়ে নজরে আসবে। তথ্যমূলক কোনো লেখাই যেন বাদ না পড়ে যায়, এর জন্য প্রতিদিন অন্তত দু-একটি ছাপা পত্রিকা ও অন্যান্য প্রকাশনা দেখতে পারেন। পরিবেশ ও চিকিত্সা বিজ্ঞান, বাংলাদেশের ভূ-প্রকৃতি, জলবায়ু, প্রাচীন বাংলার ইতিহাস ও সভ্যতা, ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্ম, নদ-নদী আর আন্তর্জাতিক অংশের জন্য বিভিন্ন দেশের ভৌগোলিক পরিচিতি, মুদ্রা, দিবস, পুরস্কার ও সম্মাননা, জাতিসংঘ, প্রাত্যহিক জীবনে বিজ্ঞান, তথ্য-প্রযুক্তি, রোগব্যাধি,  খেলাধুলা, ক্রিকেট ইত্যাদির ওপর প্রশ্ন থাকবে।

গুরুত্বপূর্ণ বই
বিগত বছরগুলোর শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা ও বিসিএস প্রশ্ন্নগুলো চর্চা করলে প্রিলিমিনারির প্রস্তুতি অনেকটাই হয়ে যায়। বাজারে এসব পরীক্ষার ‘প্রশ্ন ব্যাংক’ বই আকারে পাওয়া যায়। এ ছাড়া বাজারে প্রিলিমিনারি পরীক্ষার সহায়িকার বেশ কিছু বই আছে, যেমন—অ্যাসিউরেন্স, প্রফেসরস, ওরাকল, এমপিথ্রি, সিলেকশন। বইগুলোর দাম ৩০০ থেকে ৪০০ টাকার মধ্যে।

আগের প্রিলিমিনারিতে ফেল করার কারণ
১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারিতে আট লাখ ৭৬ হাজার ৩৩ জন অংশ নিয়ে পাস করেছিলেন এক লাখ ৫২ হাজার জন। অর্থাত্ পাসের হার ছিল ২০.৫৩ শতাংশ। প্রায় পাঁচ হাজার পরীক্ষার্থী প্রিলিমিনারিতে পাস নম্বর পেলেও ওএমআর শিট পূরণে ভুল করায় চূড়ান্ত মূল্যায়নে ফেল করেছিলেন। গত পরীক্ষায় স্কুল পর্যায়ের প্রশ্ন কিছুটা কঠিন ছিল। নিবন্ধন পরীক্ষার প্রশ্নের গণিত অংশে সচরাচর ত্রিকোণমিতি থেকে প্রশ্ন আসে না, কিন্তু ১৫তম পরীক্ষায় এর ওপরও প্রশ্ন ছিল। প্রস্তুতি না থাকায় এ অংশে অনেকেই খারাপ করেছেন।

সাধারণত কলেজ পর্যায়ের ইংরেজি অংশে সাহিত্য থেকে বেশি প্রশ্ন আসে; কিন্তু ১৫তম নিবন্ধনের প্রিলিমিনারিতে সবচেয়ে বেশি প্রশ্ন ছিল গ্রামারে। গ্রামারে দুর্বলতার কারণেই অনেকের নম্বর কমেছে।

আবেদন যেভাবে
যাঁরা এখনো আবেদন করেননি, তাঁরা ১৯ জুন ৬টা পর্যন্ত আবেদনের সুযোগ পাবেন। ফি ৩৫০ টাকা। টেলিটক প্রিপেইড সংযোগ থেকে দেওয়া যাবে ২২ জুন ৬টার মধ্যে। ‘এমপিও নীতিমালা-২০১৮’ অনুযায়ী সর্বোচ্চ ৩৫ বছর বয়স পর্যন্ত প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন।

♦    অনলাইনে আবেদন ও বিস্তারিত বিজ্ঞপ্তি

     এই লিংকে : http://ntrca.teletalk.com.bd

♦    স্কুল, স্কুল-২ ও কলেজ পর্যায়ের সিলেবাস

     এই লিংকে : http://www.ntrca.gov.bd

প্রিলিমিনারি পরীক্ষার সূচি
♦    স্কুল-২ ও স্কুল পর্যায় : ৩০ আগস্ট ২০১৯ (শুক্রবার) সকাল ১০টা-১১টা।

♦    কলেজ পর্যায় : ৩০ আগস্ট ২০১৯ (শুক্রবার) বিকেল ৩টা-৪টা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা